ব্যাচেলর পয়েন্ট আকাশ থেকে বানাই না, সমাজ থেকেই বানাই: অমি

Dhaka Post Desk

বিনোদন ডেস্ক

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:১৮ পিএম


ব্যাচেলর পয়েন্ট আকাশ থেকে বানাই না, সমাজ থেকেই বানাই: অমি

একটি সংলাপ নিয়ে বিতর্কের মুখে সময়ের জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক ‘ব‌্যাচেলর পয়েন্ট’-এর তিনটি পর্ব ইউটিউব থেকে সরিয়ে নিয়েছে এর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ধ্রুব টিভি। গতকাল (২৫ সেপ্টেম্বর) ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া সিজন ফোরের এই পর্বগুলো হলো ৭৪, ৭৫ ও ৭৬। এ বিষয়ে ব্যাখা নিয়ে নিজেদের ফেসবুক পেজে একটি বিবৃতিও দিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এবার এ নিয়ে মুখ খুলেছেন নাটকটির নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি। ঢাকা পোস্টকে পুরো বিষয়টি নিয়ে নিজের মতামত জানিয়েছেন জনপ্রিয় এই নির্মাতা।

নাটকের বিতর্কিত সংলাপ ‘যৌনকর্মীর ছেলে’ ব্যবহার প্রসঙ্গে অমি বলেন, “যৌনকর্মীর ছেলে-সংলাপটা নিয়ে অনেকের দ্বিমত ছিলো। আমার পয়েন্টটা হলো আমরা কিন্তু ‘খা… ছেলে’, ‘মা.. ছেলে’ (শব্দটি প্রকাশযোগ্য নয়) এই ধরনের শব্দ বাস্তব জীবনে ব্যবহার করে থাকি। বাংলাদেশের নাটক-সিনেমায়ও এই শব্দগুলো ব্যবহার হয়। সেখানে ‘খা… ছেলে’র বদলে আমি ‘যৌনকর্মীর ছেলে’ শব্দটি ব্যবহার করেছি। যৌনকর্মী একটা শ্রেণিকে বোঝায়। যৌনকর্মী বলা তো তাদের জন্য স্বীকৃতি। কিন্তু তাদেরকে যদি আমরা ‘খা..’ বলি নিশ্চয়ই সেটা তারা পছন্দ করবে না। ইনফ্যাক্ট ‘খা… ..-মা.. ..’ গালিটাই দেওয়া উচিত না। কিন্তু আমরা চরিত্রের প্রয়োজনে বা নেগেটিভিটি বোঝানোর জন্য অনেক সময় মদ খাওয়া, ধর্ষণ, সিগারেট খাওয়া, মিথ্যা বলা, চুরি করা বা গালি ব্যবহার করি। সেই জায়গা থেকেই শব্দটা ব্যবহার করেছি।’

একটা মুষ্টিমেয় গ্রুপ এ নিয়ে সক্রিয় ছিলো জানিয়ে অমি বলেন, “এটা নিয়ে যারা নেগেটিভ মন্তব্য করেছে, এরমধ্যে আমি খেয়াল করে দেখেছি একটা লেখাই বিভিন্ন পেজে আপলোড করা হয়েছে। একটা মুষ্টিমেয় গ্রুপ যারা ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ পছন্দ করে না তারা এই লেখাটা লিখে বিভিন্ন পেজে আপলোড দিয়েছে। কিন্তু আমরা এই সংলাপটা মিউট করার জন্য আপাতত সেই পর্বগুলো প্রাইভেট করে রেখেছি। যারা ব্যাচেলর পয়েন্টকে আপাতত অপছন্দ করছে না বা হেইট করছে তাদেরকে সম্মান জানিয়েই কাজটি করা।’

নাটকের দৃশ্যে ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ টিম
‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের দৃশ্য

এই নির্মাতার ভাষায়, ‘ব্যাচেলর পয়েন্টের আসল দর্শক যারা তারা কিন্তু সবাই সংলাপটি পছন্দ করেছে। বিভিন্ন পোস্টে যারা নেগেটিভ মন্তব্য করেছেন সেখানে গিয়ে কিন্তু তারা এটার পক্ষে যুক্তি দিয়েছেন। সেই জায়গা থেকে কিন্তু আমি চাইলে সংলাপটা রেখেও দিতে পারতাম। কিন্তু সেটা করিনি। কারণ যারা সংলাপটা অপছন্দ করছেন তারাও তো আমার দর্শক। তাদের সঙ্গে তো আমার ব্যক্তিগত কোনো শত্রুতা নেই। ব্যাচেলর পয়েন্ট দেখছেন বলেই নেগেটিভ জিনিসগুলো তাদের চোখে পড়েছে।’

বাস্তবজীবন থেকেই ব্যাচেলর পয়েন্ট নির্মাণ করেন জানিয়ে অমি জানান, ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট আমি আকাশ থেকে বানাই না। সমাজ থেকেই বানাই। এখানে তাই দেখানো হয় যা আমরা করি। আমরা বাস্তবজীবনে কিন্তু কারণে-অকারণে এরচেয়েও বেশি গালি ব্যবহার করি। তার ফিফটি পারসেন্ট হয়তো নাটকে দেখাতে পারি। বাংলাদেশে এখন কিন্তু ওটিটিতে গালি ব্যবহারের ক্ষেত্রে কোনো বিপি দেওয়া হয় না। সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া সিনেমায়ও অনেক গালি রয়েছে। সেটা কিন্তু মানুষ পরিবার নিয়ে দেখেছে। আর ব্যাচেলর পয়েন্টের শুরুতেই তো আমরা ডিসক্লেইমার দিয়ে দিচ্ছি। এটা কিন্তু অ্যাডাল্ট কনটেন্ট। এটা বাচ্চাদের জন্য না।’

সবশেষ অমি বলেন, ‘তারপরও দর্শকের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমার জায়গা থেকে আমি আরও সতর্ক থাকবো। আরও বেশি বিপ ব্যবহার করবো। দর্শকের ভালোবাসা নিয়েই নাটকটি তার নিজস্ব গতিতে এগিয়ে যাবে।’

‘ব‌্যাচেলর পয়েন্ট : সিজন ৪’ এর অন্যতম প্রধান চরিত্র পাশা। এই চরিত্রে অভিনয় করেছেন মারজুক রাসেল। সম্প্রতি প্রচারিত পর্বে তাকে একটি সংলাপে বলতে শোনা যায়—‘এই যৌনকর্মীর ছেলে।’ এই সংলাপ নিয়েই সমালোচনা শুরু হয়।

উল্লেখ্য, ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ধারাবাহিকের যাত্রা শুরু ২০১৭ সালে। চলতি বছরের শুরুর দিকে তৃতীয় মৌসুম শেষ হওয়ার পর চতুর্থ মৌসুমের প্রচার শুরু হয়। এতে মারজুক রাসেল ছাড়াও অভিনয় করেছেন জিয়াউল হক পলাশ, চাষী আলম, সাবিলা নূর, সানজানা সরকার, ফারিয়া শাহরিন, সুমন পাটোয়ারি, শরাফ আহমেদ জীবন, আবদুল্লাহ রানা, মনিরা মিঠু, পাভেল, শিমুল, পারসা ইভানা, আশুতোষ সুজন প্রমুখ।

আরআইজে

Link copied