ছেলের কাছে হেরে যাওয়াতেই অপূর্বর আনন্দ

Dhaka Post Desk

বিনোদন ডেস্ক

০৭ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৩৫

ছেলের কাছে হেরে যাওয়াতেই অপূর্বর আনন্দ

২০১৪ সালের ২৭ জুন নিজের জন্মদিনেই বাবা হয়েছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। তার ছেলে জায়ান ফারুক আয়াশের বয়স কিছুদিন পরেই সাত বছর পূর্ণ হবে। অপূর্ব-আয়াশের সম্পর্ক নিয়ে অভিনেতার ভক্তদের কৌতূহলের শেষ নেই। সামাজিক মাধ্যমে বাপ-বেটার ছবি কিংবা কোনো ভিডিও দেখলেই সেখানে ঝাঁপিয়ে পড়েন নেটিজেনরা।

সারাদিনের কাজের ক্লান্তির পর বাসায় ফিরে ছেলেকে বুকে জড়িয়েই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন অপূর্ব। বাপ-ছেলের বাইরেও দুজনের একটা সম্পর্ক হয়ে গেছে। সেই সম্পর্কটা বন্ধুত্বের-ভালোবাসার। ছেলের আবদার-অনুরোধে অপূর্ব সাড়া দেন মুহূর্তেই।

‘ঢাকা পোস্ট’কে অপূর্ব বলেন, ‘আয়াশ এবার স্ট্যান্ডার্ড ওয়ানে উঠবে। দিনে দিনে ও বড় হচ্ছে, পৃথিবী সম্পর্কে জানছে, নানান প্রশ্ন করছে-এই বিষয়গুলো আমি বেশ এনজয় করি। ও খুব লক্ষী একটা বাচ্চা। আমার সবকিছুই বোঝে। ওকে বকা দিতে হয় না। ও জানে আমি কী পছন্দ করি, কী করি না।’

অপূর্ব জানান, ছেলের সঙ্গে প্রচুর রেসলিং খেলেন তিনি। খেলেন আরও কিছু গেমসও। আর এসব খেলায় ছেলের কাছে হেরে যাওয়াতেই তার যত আনন্দ। একটু সময় পেলেই দুজন ঘুরতে বের হন, হাসি-ঠাট্টায় মেতে ওঠেন। অভিনেতার ভাষ্য, ‘ও আমার হাতের স্টেক খুব পছন্দ করে। সময় পেলেই ওকে স্টেক বানিয়ে খাওয়াই।’

ছেলের জন্য নতুন রেসিপি বানানো শিখতেই হয়তো আজকাল অনেক ফুড ভ্লিগিং দেখছেন অপূর্ব। বাসায় ফিরে সময় পেলেই ফুড রেঞ্জার, অ্যারাউন্ডি মি বিডি, ভিল ফুড প্রভৃতি অনুষ্ঠান দেখছেন তিনি। অচিরেই হয়তো ছেলের দাবি মেটাতে নতুন কোনো রেসিপি ট্রাই করবেন নাটকের এই ‘বড় ছেলে’।

শিহাব শাহীন পরিচালিত 'বিনি সুতোর টান' নাটকে অভিনয়েও অভিষেক হয়ে গেছে অপূর্বপুত্র আয়াশের। সেই নাটকটি দর্শক এতই পছন্দ করেছেন যে কোটি ভিউয়ারও পেরিয়ে গেছে। তবে এখনি জোর করে ছেলেকে অভিনেতা বানাতে চান না অপূর্ব। বললেন, ‘ছেলে আগে বড় হোক। বড় হয়ে ভালো যে কাজই করুক না কেনো আমি স্বাগত জানাবো। আমার চাওয়া একটাই সে যেন সত্যিকারের মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠে।’

আরআইজে

Link copied