নির্বাচনে জেতার পর সোহমের শ্যালিকার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

Dhaka Post Desk

বিনোদন ডেস্ক

০৪ মে ২০২১, ১৩:০৬

নির্বাচনে জেতার পর সোহমের শ্যালিকার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

২০১৬ সালে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছিলেন টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী। কিন্তু জয় পাননি তিনি। তবে এবার আর হাতছাড়া হলো না। মেদিনীপুরের চণ্ডীপুর আসনে বিধায়ক হিসেবে জয়ী হলেন টলিউডের এই তারকা। 

জয়ের উল্লাসের মধ্যেই প্রিয়জন হারালেন সোহম। রোববার (২ মে) নির্বাচনের ফল ঘোষণার দিনই শ্যালিকা পারমিতা নাথের (৩৫) মৃত্যুসংবাদ পান তিনি। তাই জয়ের আনন্দ মুহূর্তেই যেন ফিকে হয়ে গেল।

স্থানীয় পুলিশ বলেছে, রোববার কেষ্টপুরের এএইচ ব্লকের একটি ফ্ল্যাট থেকে পারমিতার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এতে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। পারমিতার মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে। 

খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সোহমের স্ত্রী কেষ্টপুরে যান। স্থানীয় থানায় তিনিই বাদী হয়ে বধূ নির্যাতনের মামলা করেন। সেই মামলার অভিযোগের ভিত্তিতে পারমিতার স্বামী রুদ্রপ্রসাদ ও শাশুড়ি বাসন্তী নাথকে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযোগে বলা হয়, পারমিতার ওপর নিয়মিত শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানো হতো। এমনকী তাকে বিবাহবিচ্ছেদের জন্যও চাপ প্রয়োগ করা হতো। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ বলেছে, দিনের পর দিন অত্যাচারের জের ধরে মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন এবং এক পর্যায়ে আত্মহত্যা করেন। 

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ভারতের রাজনীতিতে অভিষেক হয় সোহমের। সে সময় বড়জোড়া থেকে তাকে প্রার্থী করা হলেও জয় পাননি। পরবর্তীতে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সহ-সভাপতির পদে আসীন হন এবং সম্প্রতি বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির পুলককান্তি গুড়িয়া এবং সিপিএমের আশিস গুছাইতকে পরাজিত করে জয় পেয়েছেন। 

নির্বাচনে জয়ের পর ফেসবুকে তিনি বলেন, ‘এ জয় আমার জয় নয়, এ জয় গোটা চণ্ডীপুর বিধানসভার জয়, এ জয় গোটা বাংলা এবং আমাদের নেত্রী শ্রদ্ধেয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের জয়।’ 

এইচএকে/এমআরএম

Link copied