অপরিণত নবজাতকের চোখের রোগ বিষয়ক কর্মশালা

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

২২ মে ২০২২, ০৭:১১ পিএম


অপরিণত নবজাতকের চোখের রোগ বিষয়ক কর্মশালা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) অপিরণত নবজাতকের চোখের রোগের (রেটিনোপ্যাথি অব প্রিম্যাচুরিটি-আরওপি) চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা বিষয়ের উপর পাঁচ দিনব্যাপী কর্মশালা শুরু হয়েছে। 

রোববার (২২ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের চক্ষু বিজ্ঞান বিভাগে এই কর্মশালার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ।

এসময় উপাচার্য শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, নির্দিষ্ট সময়ের আগে নবজাতকের জন্ম হলে অন্যান্য রোখের সঙ্গে চোখেরও সমস্যা হয়। নির্দিষ্ট সময়ের পর জন্ম নিলে এ ধরণের জটিলতা হয় না।

তিনি বলেন, যদি অপরিণত বয়সে নবজাতকরা জন্মগ্রহণ করে এবং চোখের ত্রুটি থাকে তবে দেরি না করে, সঙ্গে  সঙ্গে চক্ষু বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিলে এ ত্রুটি সেরে ওঠে। আর যদি কোন অভিভাবক অপরিণত বয়সে জন্ম নেওয়া নবজাতকের চিকিৎসা না করতে পারেন, তবে নবজাতককে সারাজীবন কষ্টে পার করতে হবে।

কর্মশালা নিয়ে উপাচার্য বলেন, অপরিণত বয়সে জন্ম নেওয়া নবজাতকদের আজকাল দেশেই ভাল চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা রয়েছে। তবুও চক্ষু বিশেষজ্ঞদের আন্তর্জাতিক মানদণ্ড বজায় রাখার জন্য তাদের ব্যবস্থাপনা করার জন্য কর্মশালার গুরুত্ব অপরিসীম।

প্রসঙ্গত, কর্মশালা সারাদেশ থেকে ৩০ জন চিকিৎসক উদ্বোধনী দিনে অংশগ্রহণ করেন। তাদের প্রশিক্ষণ দিতে  ভারতের হায়দারাবাদের এনভি কোসাদ আই ইনস্টিটিউটের প্রশিক্ষক ডা. সুভদ্রা জালালী ও কলকাতার চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডা. অভিজিত চট্টোপাধ্যায় বাংলাদেশে আসেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চক্ষু বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ডা. নুজহাত চৌধুরীর সঞ্চালনায় ও  বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. জাফর খালেদের সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চক্ষু বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আব্দুল ওয়াদুদ, অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল খালেদ, সহযোগী অধ্যাপক ডা. তারিক রেজা আলী প্রমুখসহ বিভাগের শিক্ষক চিকিৎসক কর্মকর্তা, নার্সরা উপস্থিত ছিলেন।

টিআই/আইএসএইচ

Link copied