বুস্টার ডোজ নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে গবেষণা চলছে : বিএসএমএমইউ ভিসি

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০১ পিএম


বুস্টার ডোজ নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে গবেষণা চলছে : বিএসএমএমইউ ভিসি

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর বুস্টার ডোজ নিতে হবে কি না সে বিষয়ে গবেষণা চলছে বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ। 

বুধবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিল্টন হলে আয়োজিত বিএসএমএমইউয়ের তৃতীয় গবেষণা দিবস-২০২১ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএসএমএমইউ ভিসি বলেন, শুরুর দিকে যারা ভারতের অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রেজেনেকার টিকা নিয়েছেন, ৬ মাস পর তাদের শরীরে অ্যান্টিবডি উপস্থিতির হার আগের তুলনায় মাত্র ৫ শতাংশ কমেছে।

শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বিএসএমএমইউয়ের গবেষকদের কোভিড-১৯ এর জেনোম সিকোয়েন্সিং গবেষণায় দেখা গেছে, মোট সংক্রমণের প্রায় ৯৮ শতাংশ হচ্ছে ইন্ডিয়ান বা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট। কোভিড-১৯ এর টিকা গ্রহীতাদের ওপর গবেষণার ফলাফল প্রকাশ করেছি। সেখানে টিকা গ্রহীতাদের ৯৮ শতাংশের শরীরে এন্টিবডির উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, গবেষণা কার্যক্রম জোরদার করতে আলাদাভাবে রিসার্চ সেন্টারসহ একাডেমিক ভবন গড়ে তোলা হবে। উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রদান, শিক্ষা ও গবেষণায় আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক সংযুক্তির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আন্তর্জাতিক মানের বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে বিশ্বের বুকে মাথা তুলে দাঁড়াবে। সবাই মিলে যার যে দায়িত্ব তা সঠিকভাবে পালনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর নামে প্রতিষ্ঠিত এ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়কে সফল করতেই হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মণি। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউজিসির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ, বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তাফা জালাল মহিউদ্দিন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. একেএম মোশাররফ হোসেন, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. জাহিদ হোসেন। গুরুত্বপূর্ণ এ অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের সদস্য, ডিন, বিভাগীয় চেয়ারম্যান, শিক্ষক ও চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

টিআই/এসএম/জেএস

Link copied