‘তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনা হতে পারে ইউক্রেন’

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৫ মে ২০২২, ০৪:৪২ পিএম


‘তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনা হতে পারে ইউক্রেন’

ছবি: রয়টার্স

ইউক্রেনে রাশিয়ার ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ বাঁধার পরিবেশ সৃষ্টি করছে বলে আশঙ্কা করছেন বিখ্যাত মার্কিন ধনকুবের ব্যবসায়ী ও জনকল্যাণমূলক বিভিন্ন খাতে অর্থদাতা জর্জ সোরোস।

পাশপাশি রাশিয়া ও চীনকে মুক্ত সমাজের জন্য সবচেয়ে ‘বড় হুমকি’ বলে উল্লেখ করে ৯১ বছর বয়সী এই মানবহিতৈষী ব্যবসায়ী আরও বলেছেন, যদি বিশ্বকে রক্ষা করতে হয়— তাহলে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে পরাজিত করা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই।

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের সম্মেলনে যোগ দিতে সুইজারল্যান্ডের দাভোস শহরে গিয়েছেন জর্জ সোরোস। বুধবার সেখানে তিনি বলেন, ‘ইউক্রেনে যে আগ্রাসন চলছে— সম্ভবত এটি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূত্রপাত এবং যদি সত্যিই এমন ঘটে, সেক্ষেত্রে আমি বলব— মানবসভ্যতা ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপস্থিত।’

‘এবং এই সভ্যতাকে রক্ষা করতে হলে যত দ্রুত সম্ভব পুতিনকে পরাজিত করতেই হবে। এটাই মূল কথা; এছাড়া আমাদের সামনে আর বিকল্প কোনো পথ খোলা নেই।’

পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোকে ঘিরে দ্বন্দ্বের জেরে দুই মাস সীমান্তে সেনা মোতায়েন রাখার পর গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ঘোষণার দু’দিন আগে ২২ ফেব্রুয়ারি দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় দুই ভূখণ্ড দনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেন তিনি।

তৃতীয় মাসে গড়িয়েছে ইউক্রেনে রুশ সেনাদের বিশেষ সামরিক অভিযান। যুদ্ধের শুরু থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা ব্যাপকভাবে রাশিয়াবিরোধী অবস্থান নিয়ে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে রাশিয়া, ভ্লাদিমির পুতিন ও রুশ সরকারি কর্মকর্তা-ব্যবসায়ী এবং বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানসমূহের বিরুদ্ধে।

ইতোমধ্যে বিভিন্ন দেশ যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করার দাবি জানিয়েছে রাশিয়ার প্রতি; কিন্তু এখনও সেই দাবিতে সাড়া দেয়নি মস্কো। দাভোস সম্মেলনে সোরোস দাবি করেন, যুদ্ধে হাজার হাজার সেনা সদস্য হারিয়ে বর্তমানে মানসিকভাবে দুর্বল অবস্থায় আছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং এখন নিজেদের স্বার্থেই যুদ্ধবিরতি চান তিনি।

কিন্তু এখন যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করলে তার ফলাফল বিপদ ডেকে আনতে পারে— সতর্কবার্তা দিয়ে সোরোস বলেন, ‘এখন যুদ্ধবিরতির কোনো প্রশ্নই আসে না; কারণ দুর্বল অবস্থায় পুতিন আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন। আমরা কোনোভাবেই তাকে বিশ্বাস করতে পারি না।’

‘বিশ্বজুড়ে গণতন্ত্র, মুক্ত সমাজব্যবস্থা দখল করছে দমনমূলক শাসকগোষ্ঠী। আজকের পৃথিবীতে মুক্ত সমাজের সবচেয়ে বড় হুমকি রাশিয়া ও চীন।’ যুদ্ধে ইউক্রেনের জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী এই প্রবীণ মানবহিতৈষী ব্যবসায়ী বলেন, ‘আমি ভবিষ্যৎ বলতে পারি না, তবে আমার বিশ্বাস— এখনও লড়াই করার সুযোগ আছে ইউক্রেনের।’

হাঙ্গেরীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন ব্যবসায়ী জর্জ সোরোস বিশ্বের সবচেয়ে ধনী বিনিয়োগকারীদের মধ্যে একজন। মূলত অর্থ ও ব্যাংক ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত তিনি। বিখ্যাত মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের তথ্য অনুযায়ী, ২০২১ সালে তার মোট সম্পদের পরিমাণ ছিল ৮৬০ কোটি ডলার।

ওপেন সোসাইটি ফাউন্ডেশন নামের একটি দাতব্য সংস্থা রয়েছে তার। ইতোমধ্যে বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক কাজে এই সংস্থা কোটি কোটি ডলার দান করেছে।

সূত্র: রয়টার্স

এসএমডব্লিউ

Link copied