জনগণকে ‘আদর্শহীনতার’ রাজনীতি প্রত্যাখ্যানের আহ্বান শেহবাজের

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৬ মে ২০২২, ১২:৪১ পিএম


জনগণকে ‘আদর্শহীনতার’ রাজনীতি প্রত্যাখ্যানের আহ্বান শেহবাজের

ছবি: দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

পাকিস্তানের জনগণকে ‘আদর্শহীনতার’ রাজনীতি প্রত্যাখ্যান করার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেছেন, পাকিস্তানের বর্তমান অর্থনৈতিক সংকটের প্রধান কারণ এই ‘আদর্শহীন’ রাজনীতি।

বৃহস্পতিবার রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে ৬৫ কিলোমিটার দূরে কারোট গ্রামে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন শেহবাজ। সেখানে ইমরানের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানে বর্তমানে যে অর্থনৈতিক সংকট চলছে, তার প্রধান কারণ আদর্শহীনতার রাজনীতি।’

‘সেই রাজনীতি আবার শুরু হয়েছে....জাতিকে বিভক্ত করে— এমন রাজনীতি আমাদের কখনও অনুসরণ করা উচিত নয়। আপনি (ইমরান খান) লংমার্চ-ধর্মঘটের মাধ্যমে জনগণকে কী বার্তা দিতে চাইছেন।

পরে এক টুইটবার্তায় এ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের উন্নতি নির্ভর করছে কঠোর পরিশ্রমের ওপর— এটা আমার দৃঢ় বিশ্বাস। আল্টিমেটামের রাজনীতি দেশের উন্নতি ও স্থিতিশীলতা— উভয়ের জন্যই ক্ষতিকর।’

‘পাকিস্তানের জনগণ দেশের বিদ্যমান বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ থেকে উত্তরণ চায়, এবং তাতে জনগণকে নেতৃত্ব দেওয়ার দায়িত্ব আমাদের। কোনো কিছুই আমাদেরকে দায়িত্ব পালন থেকে বিরত রাখতে পারবে না এবং জনগণ আদর্শহীনতার রাজনীতি প্রত্যাখ্যান করবে।’

পার্লামেন্টে আস্থা ভোটে পরাজিত হয়ে গত ১০ এপ্রিল দেশের প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়তে বাধ্য হন ইমরান খান। প্রধানমন্ত্রীর পদ হারানোর পর পার্লামেন্টের সদস্যপদ থেকেও ইস্তফা দেন তিনি ও তার দলের সদস্যরা। তার দু’দিন পর নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন পার্লামেন্টের সাবেক বিরোধী নেতা ও পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএলএন) চেয়ারম্যানে শেহবাজ শরীফ।

ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকেই পার্লামেন্ট  নতুন নির্বাচন ঘোষণার দাবি জানিয়ে আসছিলেন তিনি। এই দাবিতে সম্প্রতি লংমার্চের ঘোষণা দেন তিনি।

গত সোমবার দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ খাইবার পাখতুনওয়ার রাজধানী পেশোয়ার থেকে ইসলামাবাদ অভিমুখে লংমার্চ করে পিটিআইয়ের সমর্থকরা।

সোমবার লংমার্চ শুরুর পর বুধবার ইসলামাবাদের ডি-চক এলাকা পৌঁছায় ইমরান খানের গাড়িবহর। এ দিন রাজধানী অভিমুখে আসার পথে ৫০ কিলোমিটার দূরে যাত্রাবিরতি করেন ইমরান। সেখানে তিনি বলেন, আমদানি করা সরকার নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা না করা পর্যন্ত তিনি এবং তাঁর সমর্থকরা ডি-চক খালি করবেন না।

বৃহস্পতিবার অবশ্য নিজের পুরনো সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন ইমরান খান। এই দিন ইসলামাবাদের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা রেড জোনে দলীয় সমাবেশে দেওয়া ভাষণে সরকারকে পার্লামেন্ট বিলোপ ও নতুন নির্বাচন ঘোষণার জন্য ৬ দিনের আল্টিমেটাম দেন তিনি।

যদি সরকার এই আল্টিমেটাম না মানে, সেক্ষেত্রে সপ্তম দিনে পুরো জাতিকে নিয়ে ইসলামাবাদে প্রবেশ করবেন বলে হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন পিটিআই চেয়ারম্যান।

সূত্র: দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

এসএমডব্লিউ

Link copied