শব্দের চেয়ে দশগুণ বেশি গতির ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা রাশিয়ার

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৮ মে ২০২২, ০৭:৩১ পিএম


শব্দের চেয়ে দশগুণ বেশি গতির ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা রাশিয়ার

ইউক্রেন যুদ্ধের মাঝে ‘অপরাজেয়’ জিরকন হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালানোর দাবি করেছে রাশিয়া। শনিবার দেশটির সামরিক বাহিনী বলেছে, আর্কটিক সাগর থেকে ছোড়া এই ক্ষেপণাস্ত্র এক হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, আর্কটিক ব্যারেন্ট সাগরের অ্যাডমিরাল গোর্শকভ রণতরী থেকে জিরকন হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হয়েছে। পরে সেটি আর্কটিকের এক হাজার কিলোমিটার দূরের হোয়াইট সাগরের লক্ষ্যবস্তুতে সফলভাবে আঘাত করেছে।

চলমান ‘নতুন অস্ত্রের পরীক্ষার’ অংশ হিসেবে এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করা হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। ২০২০ সালের অক্টোবরে প্রথমবারের মতো জিরকন ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হয়েছিল, সেই সময় এই অস্ত্রের পরীক্ষার প্রশংসা করেছিলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পরে একই রণতরী এবং সাবমেরিন থেকে অপ্রতিরোধ্য এই হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের আরও পরীক্ষা চালানো হয়।

ইউক্রেনে গত ফেব্রুয়ারিতে আক্রমণ শুরুর পর বর্তমানে দেশটির নতুন নতুন শহরে ব্যাপক লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে রুশ সৈন্যরা। এই অস্ত্রটি শব্দের গতির চেয়ে পাঁচ থেকে দশগুণ বেশি গতিতে ছুটতে পারে। একই সঙ্গে এটি সর্বোচ্চ প্রায় ১ হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্য ভেদ করতে পারে।

গত মার্চে প্রথমবারের মতো ইউক্রেন যুদ্ধে নিখুঁত নিশানায় আঘাত হানার জন্য পরিচিত হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র কিনঝাল বা ড্যাগারের ব্যবহার করেছিল মস্কো। পুতিন এই ক্ষেপণাস্ত্রকে রাশিয়ার অস্ত্রভাণ্ডারের নতুন ‘অপরাজেয়’ অস্ত্র হিসেবে বর্ণনা করেন।

সূত্র: এএফপি।

এসএস

Link copied