মিয়ানমারের আরও দুই জেনারেলের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪:১৪

মিয়ানমারের আরও দুই জেনারেলের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

সোমবার ইয়াঙ্গুনের রাস্তায় সাধারণ মানুষের অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ

সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের সঙ্গে জড়িত থাকায় মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর আরও দু’জন জেনারেলের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। স্থানীয় সময় সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দেশটি এই নিষেধাজ্ঞার কথা ঘোষণা করে বলে জানায় কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, নতুন করে নিষেধাজ্ঞার আওতায় আসা ওই দুই সেনা কর্মকর্তার নাম লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোয়ে মিন্ট তুন ও জেনারেল মং মং কিয়াও। তারা উভয়েই স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ কাউন্সিলের (এসএসি) সদস্য। চলতি ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম দিনে অং সান সু চির সরকারকে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে উৎখাতের পর সামরিক বাহিনী ওই প্লাটফর্মটি প্রতিষ্ঠা করে।

মৃত্যুর হুমকি উপেক্ষা করে সোমবার মান্দালয়ের রাস্তায় সাধারণ মানুষ

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিদেশী সম্পদ নিয়ন্ত্রণবিষয়ক দপ্তর জানায়, গণতান্ত্রিক সরকারের হাতে ক্ষমতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে সাধারণ মানুষের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে গুলিবর্ষণ এবং দুই বিক্ষোভকারীকে হত্যার প্রতিক্রিয়ায় এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

পরে টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, ‘সহিংসতা উস্কে দেওয়া এবং মানুষের মতামতকে জোরপূর্বক দমনের চেষ্টা করা সামরিক কর্মকর্তাদের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার আওতায় আনার লক্ষ্যে আজকের (নিষেধাজ্ঞার) সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে।’

আলজাজিরা জানিয়েছে, নিষেধাজ্ঞার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে থাকা লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোয়ে মিন্ট তুন ও জেনারেল মং মং কিয়াওয়ের সম্পদ জব্দ করা হবে। একইসঙ্গে কোনো মার্কিন কোম্পানি বা নাগরিকের এই দুই জেনারেলের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক স্থাপনও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলে নেওয়ার পর থেকে দেশটির লাখ লাখ মানুষ সেনাশাসনের অবসানের দাবিতে বিক্ষোভ করে আসছেন। অভ্যুত্থানবিরোধীদের এই বিক্ষোভ দেশটির বড় বড় শহরের পাশাপাশি বিভিন্ন অঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়েছে।

দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলমান এই বিক্ষোভে দেশটির জাতিগত সংখ্যালঘু, লেখক-কবি এবং পরিবহন শ্রমিকরাও যোগ দিয়েছেন। তারা সেনাশাসনের অবসান ঘটিয়ে দেশটির নির্বাচিত নেত্রী অং সান সু চি এবং অন্যান্যদের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের দাবি তুলেছেন।

সোমবার মান্দালয় শহরের রাস্তায় অভ্যুত্থানবিরোধীদের বিক্ষোভ

সর্বশেষ গত শনিবার মিয়ানমারের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মান্দালয়ে সামরিক জান্তাবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশের ছোড়া গুলিতে দু’জন নিহত হয়।

সূত্র: আলজাজিরা

টিএম

Link copied