সুনামির ভয় জাগাচ্ছে নিউজিল্যান্ডের ঢেউ

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৫ মার্চ ২০২১, ১১:৪৬

সুনামির ভয় জাগাচ্ছে নিউজিল্যান্ডের ঢেউ

নিউজিল্যান্ডে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার সকালে তিন দফা শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর জারি করা হয় সুনামি সতর্কতা। সতর্কতা জারির পর দেশটির তকোমারু উপসাগর উপকূলে ঢেউ আছড়ে পড়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এসব ঢেউ ছোট হলেও এগুলোকে অনেকে বড় সুনামির পূর্বাভাস হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

এর আগে স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে ৮ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী তৃতীয় দফায় একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে নিউজিল্যান্ডে। তৃতীয় ভূমিকম্পের পর আবারও জারি করা হয় সুনামি সতর্কতা। এরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেশটির তকোমারু উপসাগর উপকূলে ছোট ছোট ঢেউ আছড়ে পড়তে দেখা যায়।

কিউই গণমাধ্যম নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানিয়েছে, ক্লাইডিয়া মাকার শেয়ার করা ভিডিওতে দেখা যায়- স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত তকোমারু উপসাগর উপকূলে সুনামির কারণে সৃষ্ট ঢেউ আছড়ে পড়ছে। একই ভিডিও শেয়ার করেছে দেশটির জরুরি ব্যবস্থাপনা বিভাগের শাখা ওয়াইআপু সিভিল ডিফেন্স নামক একটি প্রতিষ্ঠান।

এদিকে উপকূলে আছড়ে পড়া সুনামির এই ঢেউ দেখার দৃশ্যকে ‘অবাস্তব’ বলে স্থানীয় গণমাধ্যম ওয়ান নিউজকে জানিয়েছে মাকা।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলে জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল ৯টার আগে উত্তর-পূর্বের কেরমাডেক আইল্যান্ডে শক্তিশালী এই ভূমিকম্প আঘাত হানে। বিবিসি জানিয়েছে, শুক্রবার নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানে সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে।

ভূমিকম্পের পর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করে দেশটির পূর্ব উপকূলে ‘অকল্পনীয় জলোচ্ছ্বাসের’ ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে বাসিন্দাদের। 

বিভিন্ন প্রতিবেদনের বরাতে বিবিসি জানিয়েছে, তৃতীয় দফায় সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর নিউজিল্যান্ডের বেশ কিছু শহরের মানুষের মধ্যে উঁচু স্থানে যাওয়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছে। দিগ্বিদিক হয়ে মানুষজন ছোটাছুটি করছেন। 

সুনামি সতর্কতা জারির পর নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে উচু স্থানে চলে যাচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের ওয়ানগারেই শহরের মানুষ

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ২৭ মিনিটে প্রথম ৭ দশমিক ২ মাত্রার এবং ভোর ৬টা ৪১ মিনিট দ্বিতীয়বার ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দেশটি। কর্তৃপক্ষ সমুদ্রতীরবর্তী কিছু এলাকার লোকজনকে দ্রুত উঁচু স্থানে আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। 

প্রথম ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। পরে সুনামি সতর্কতা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

কিন্তু শুক্রবার সকালে আগের দুটির চেয়ে শক্তিশালী তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করতে বাধ্য হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা এনইএমএ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘শক্তিশালী ঢেউ এবং জলোচ্ছ্বাস মানুষকে আহত কিংবা ডুবিয়ে দিতে পারে। সাঁতারু, সার্ফার, মাছ ধরেন এমন লোকজন, ছোট নৌকা ও উপকূলে বা তার কাছাকাছি থাকা মানুষজন ঝুঁকির মুখে রয়েছে।’

সুনামির কারণে উপকূলে তিন মিটার অর্থাৎ ১০ ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস হতে পারে বলে সতর্ক করেছে নিউজিল্যান্ডের কর্তৃপক্ষ।

টিএম

Link copied