কোরআনের ২৬ আয়াত বাতিল সংক্রান্ত রায়ে আলেমদের সাধুবাদ

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ এপ্রিল ২০২১, ২০:২২

কোরআনের ২৬ আয়াত বাতিল সংক্রান্ত রায়ে আলেমদের সাধুবাদ

কোরআনের ২৬টি আয়াত বাদ দেওয়ার দাবিতে করা পিটিশন খারিজ করে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট আবেদনকারীকে জরিমানা করে গতকাল সোমবার যে নির্দেশনা দিয়েছে তাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন দেশটির আলেম সমাজ ও মুসলিম সংগঠনগুলো। আলেমরা বলছেন, এতে প্রমাণিত হয়েছে ধর্মীয় কিতাবকে দেশে সম্মানের সঙ্গে বিবেচনা করা হয়।

কোরআনের ২৬টি আয়াত নিষিদ্ধ ঘোষণার দাবিতে করা পিটিশন সরাসরি খারিজ করে দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট এরকম ‘সম্পূর্ণ অর্থহীন’ পিটিশন দাখিল করার জন্য আবেদনকারীকে ৫০ হাজার রুপি জরিমানাও করেছে।

আরও পড়ুন>> আবেদন খারিজ, বাদীর জরিমানা

সৈয়দ ওয়াসিম রিজভি নামে ভারতের উত্তরপ্রদেশের শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ও দেশটির শিয়া মুসলিম সমাজের একজন প্রভাবশালী নেতা দেশটির সুপ্রিম কোর্টে এই পিটিশন দাখিল করেছিলেন।

Rizvi
পিটিশন দাখিলকারী সৈয়দ ওয়াসিম রিজভি

গত ডিসেম্বরে তিনি কোরআনের বিশেষ এই কয়েকটি আয়াত অসাংবিধানিক ঘোষণার দাবিতে সুপ্রিম কোর্টের শরণাপন্ন হয়েছিলেন। এই আয়াতগুলো মূল কোরআনের অংশ নয় বলেও ওই পিটিশনে দাবি করা হয়েছিল।

পিটিশন দায়েরকারী শিয়া নেতা সৈয়দ ওয়াসিম রিজভির যুক্তি ছিল, কোরআনের এই আয়াতগুলোকে ‘অমুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতার সাফাই গাইতে’ ব্যবহার করা হয়। ফলে এসব আয়াত বাদ দেওয়া হোক।

বিচারপতি আর এফ নরিমন নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের তিন সদস্যের বেঞ্চ জানায়, তারা এ নিয়ে কোনো তর্কবিতর্ক শুনতে আগ্রহী নন। পিটিশন খারিজ করে দিয়ে তারা বলেন ‘এটা একেবারেই অর্থহীন আবেদন’ 

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী অল ইন্ডিয়া মুসলিম পারসোনাল ল বোর্ডের সদস্য মাওলানা খালিদ রশিদ মঙ্গলবার বলেছেন, ‘আমরা সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। এটা প্রমাণ করে যে দেশে ধর্মীয় বই সম্মানের সাথে বিবেচিত হচ্ছে। এতে করে সংবিধান ও বিচার বিভাগের প্রতি মুসলিমদের আস্থা আরও বাড়বে।’ 

যাতে ‘ভবিষ্যতে কেউ ধর্মীয় বই নিয়ে কোনো প্রশ্ন তুলতে না পারে’ এ জন্য সুপ্রিম কোর্টে ওই পিটিশন দায়েরকারী সৈয়দ ওয়াসিম রিজভির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন মাওলানা খালিদ রশিদ। 

অল ইন্ডিয়া শিয়া পারসোনাল ল বোর্ডের মুখপাত্র মাওলানা ইয়াসুব আব্বাস বলেছেন, কোরআনের বিশ্বস্ততার পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের সোমবারের এই রায়েরে জন্য তারা দেশের সকল মুসলমানদের অভিনন্দন জানাচ্ছেন।

Quran
রিজভিকে ‘ইসলামের দুশমন’ দাবি করে ভারতে বিক্ষোভও হয়।

মজলিস ওলামায়ে হিন্দের সাধারণ সম্পাদক (জিএস) মাওলানা কালবে জাওয়াদ সুপ্রিম কোর্টের এমন সিদ্ধান্তকে ‘ঐতিহাসিক’ আখ্যা দিয়ে বলেছেন, সুপ্রিম কোর্টের এই রায় সংবিধানের প্রতি মুসলিমদের আস্থা বৃদ্ধি করবে।

তিনি আরও বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের কাছে এটাই আশা করেছিলাম। শক্তি প্রয়োগে অশান্তি সৃষ্টিকারীদের জন্য এটি উপযুক্ত। এর মাধ্যমে ভবিষ্যতে যাতে এরকম কিছু না হয় সেই পথ তৈরি করে দিল সর্বোচ্চ আদালত।’

পিটিশনকারী রিজভির বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার দাবিও জানিয়েছেন তিনি। রিজভিকে ‘সুবিধাবাদী’ অভিহিত করে তিনি বলেন, ‘আমি আশা করছি, ওয়াকফ্ সম্পত্তি নিয়ে দুর্নীতির কারণে সে দ্রুত জেলে যাবে।’

এএস

Link copied