বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করা ছেলেটি চতুর্থবার জাতিসংঘে

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:১৫ পিএম


বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করা ছেলেটি চতুর্থবার জাতিসংঘে

যে ছোট ছেলে এক সময় বাবাকে তার চায়ের দোকানের কাজে সাহায্য করতো, সেই ছেলেটি চতুর্থবারের মতো বক্তৃতা করছে জাতিসংঘে। ভারতীয় গণতন্ত্রের শক্তির কথা তুলে ধরে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে চলমান জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে দেওয়া বক্তৃতায় শনিবার এমন কথা বলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। খবর এনডিটিভি অনলাইনের।

অধিবেশনে সমবেত বিশ্বনেতাদের উদ্দেশে নরেন্দ্রে মোদি এ সময় বলেন, ‘আমাদের গণতান্ত্রিক শক্তি এই সত্যকেই তুলে ধরছে যে, এক ছোট ছেলে, যে এক সময় রেলস্টেশনে তার বাবার চায়ের দোকানে তাকে সাহায্য করতো, সেই ছেলেটি ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আজ চতুর্থবারের মতো জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বক্তৃতা করছে।’   

নরেন্দ্র মোদি বলেন, তিনি এমন এক দেশের প্রতিনিধিত্ব করেন, যে দেশ ‘গণতন্ত্রের জননী’ হিসেবে পরিচিত। তিনি বলেন, ‘আমাদের রয়েছে দীর্ঘ গণতান্ত্রিক ঐতিহ্য। বহু বছর ধরে আমরা এই ঐতিহ্য ধারণ করে আসছি।’ 

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বৈচিত্র্যময় ভারত আমাদের শক্তিশালী গণতন্ত্রের পরিচয় বহন করে। ভারত এমন এক দেশ, যেখানে রয়েছে অসংখ্য ভাষা-উপভাষা, বৈচিত্র্যময় জীবনাচরণ ও রন্ধনপ্রণালী।’ প্রাণবন্ত একটি গণতান্ত্রিক পরিস্থিতি কেমন হতে পারে, ভারত তার সবচেয়ে উৎকৃষ্ট উদাহরণ বলে এ সময় দাবি করেন তিনি। 

নরেন্দ্র মোদি আরও বলেন, ‘সবার জন্য উন্নয়নই প্রধান লক্ষ্য। আর ভারতের উন্নয়ন হলে উন্নয়ন ঘটবে গোটা বিশ্বে। ভারতে সংস্কার হলে বিশ্ব বদলাবে।’ গত একশো বছরের মধ্যে বিশ্ব প্রথম এমন কোনো মহামারি মোকাবিলা করছে জানিয়ে করোনাভাইরাসে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের সবার প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন নরেন্দ্র মোদি।  

ইতোমধ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেছেন নরেন্দ্র মোদি। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এবং জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগার সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেছেন। চীনের প্রভাব ঠেকাতে এই চার দেশকে নিয়ে গঠিত জোট ‘কোয়াড’ নেতাদের সঙ্গেও প্রথমবার মুখোমুখি বৈঠকে অংশ নিয়েছেন তিনি।  

এএস

Link copied