থাইল্যান্ডের পর এবার অস্ট্রেলিয়াও কিনছে করোনা পিল মলনুপিরাভির

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩১ পিএম


থাইল্যান্ডের পর এবার অস্ট্রেলিয়াও কিনছে করোনা পিল মলনুপিরাভির

মার্কিন কোম্পানি মের্কের কাছ থেকে ৩ লাখ কোর্স অ্যান্টিভাইরাল করোনা পিল মলনুপিরাভির কিনবে অস্ট্রেলিয়া। মঙ্গলবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এই তথ্য জানিয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক সংবাদ চ্যানেল নাইন নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মরিসন এ সম্পর্কে আরও বলেন, ‘করোনারোগীদের চিকিৎসায় এই পিলটি যুক্ত করা হলে তা একটি ভিন্ন তাৎপর্য আমাদের সামনে হাজির করবে। সেটি হলো- আমরা এই ভাইরাসটির সঙ্গে সহাবস্থানের জন্য প্রস্তুত হতে পারব।’

সাক্ষাৎকারে তিনি আরও জানান, চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ার ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা করোনারোগীদের চিকিৎসায় মলনুপিরাভিরের কার্যকারিতা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে। তারপর আগামী বছরের প্রথম থেকেই এই পিলটি পাওয়া যাবে অস্ট্রেলিয়ার বাজারে।

সোমবার (৪ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে রয়টার্স জানিয়েছিল, চলতি বছর ২ লাখ কোর্স মলনুপিরাভির কিনতে মের্ক অ্যান্ড কো’-এর সঙ্গে আলোচনা চলছে থাইল্যান্ডের। পিলের জন্য ইতোমধ্যে মের্ককে আগাম বুকিংও দিয়ে রেখেছে দেশটি।

এছাড়া, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান ও মালয়েশিয়ায়ও এই পিল কেনার বিষয়ে সরকারি পর্যায়ে আলোচনা চলছে। ফিলিপাইনে বর্তমানে মেডিকেল ট্রায়াল চলছে মলনিপুরাভিরের।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ওষুধ কোম্পানি মের্ক মলনুপিরাভির নামে একটি পিল বা মুখে খাওয়ার ওষুধ তৈরি করেছে। এই ওষুধ করোনাভাইরাসের বংশবিস্তার অকার্যকর করতে সক্ষম বলে দাবি করেছে কোম্পানি।

পাশাপাশি, করোনায় আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ঝুঁকি ৫০ শতাংশ পর্যন্ত কমানোর সক্ষমতা মলনুপিরাভিরের রয়েছে বলেও জানিয়েছেন কোম্পানির কর্মকর্তারা।

এই অ্যান্টিভাইরাল ওষুধটির সম্পর্কে রয়টার্সকে মের্কের কর্মকর্তারা জানান, মলনুপিরাভির মানবদেহের প্রবেশকারী করোনাভাইরাসের জেনেটিক কোডে সমস্যা সৃষ্টি করে ভাইরাসটির বংশবৃদ্ধি প্রায় স্থবির করে দেয়। আর এর ফলেই কমতে থাকে করোনারোগীর গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ও এ রোগে মারা যাওয়ার সম্ভাবনা।

কর্মকর্তারা আরও বলেন, বাজারে বর্তমানে করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য যেসব ওষুধ ব্যবহার করা হচ্ছে, সেগুলোর মূল কাজ মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করা, ভাইরাসকে অকার্যকর করা নয়।

এক্ষেত্রে মলনুপিরাভিরই বিশ্বে প্রথম এবং এখন পর্যন্ত একমাত্র ওষুধ, যেটি মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি ভাইরাসের প্রজনন ক্ষমতা অকার্যকর করতে সক্ষম।

এ পর্যন্ত তিনটি মেডিকেল ট্রায়াল পার করেছে মলনুপিরাভির। প্রতিটি ট্রায়ালেই রোগীদের শারীরিক অবস্থার লক্ষণীয় উন্নতি দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন কোম্পানির কর্মকর্তারা।

সোমবার এক বিবৃতিতে মের্কের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ২০২১ সাল শেষ হওয়ার আগেই ১ কোটি কোর্স পিল প্রস্তুত করবে কোম্পানি। তার মধ্যে ১০ লাখ ৭০ হাজার কোর্স পিল যুক্তরাষ্ট্রে সরবরাহ করতে ইতোমধ্যে মার্কিন সরকারের সঙ্গে চুক্তি করা হয়েছে। প্রতি কোর্স পিলের দাম পড়বে ৭০০ ডলার।

সূত্র : রয়টার্স

এসএমডব্লিউ

Link copied