পুড়ে অঙ্গার হয়ে চার দশকের সামরিক জীবনের অবসান, কে এই বিপিন রাওয়াত

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:২৪ পিএম


পুড়ে অঙ্গার হয়ে চার দশকের সামরিক জীবনের অবসান, কে এই বিপিন রাওয়াত

সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট হিসেবে সেনাবাহিনীতে চার দশক আগে যোগ দেওয়া এক সামরিক জীবনের মর্মান্তিক অবসান ঘটল ভারতের প্রথম প্রতিরক্ষাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াতের। বুধবার দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তামিলনাড়ুর কুন্নুরের জঙ্গলে হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে, আগুনে পুড়ে তার সঙ্গে অঙ্গার হয়েছেন স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতসহ অন্য ১১ আরোহী।

এক টুইটে দেশটির বিমানবাহিনী বলেছে, ‘অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে আমরা নিশ্চিত করছি যে, জেনারেল বিপিন রাওয়াত, মিসেস মধুলিকা রাওয়াত ও হেলিকপ্টারে থাকা তাদের ১১ সফরসঙ্গী দুর্ভাগ্যজনক এক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।’

বুধবার বেলা ১২ টা ২০ মিনিটে তামিলনাড়ুর কুন্নুরের জঙ্গলে দেশটির প্রতিরক্ষাপ্রধানসহ ১৪ জনকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হলে প্রাণহানির এই ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় মাত্র একজন জীবিত আছেন; যার শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে এবং তার পরিচয় এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

কে এই জেনারেল রাওয়াত?

ভারতের প্রথম প্রতিরক্ষাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর সর্বোচ্চ পদমর্যাদার কর্মকর্তা ছিলেন। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর দেশটির সেনাবাহিনীর প্রধানের পদ থেকে অবসরে যাওয়ার একদিন আগে নতুন সৃষ্ট প্রতিরক্ষাপ্রধানের পদে বসানো হয় তাকে।

নতুন নিয়োগের অংশ হিসাবে, জেনারেল রাওয়াত দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সামরিক কল্যাণবিষয়ক নতুন দফতরের প্রধান হিসেবে নিযুক্ত হন।

২০১৫ সালের ডিসেম্বরে দুই জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাকে পাশ কাটিয়ে সেনাবাহিনীর প্রধান হিসেবে জেনারেল বিপিন রাওয়াতকে নিয়োগ করে নরেন্দ্র মোদির সরকার।

আরও পড়ুন: ভারতীয় প্রতিরক্ষাপ্রধানসহ হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, পুড়ে অঙ্গার ১৩ জন

রাওয়াত ভারতের এক সামরিক পরিবার থেকে উঠে এসেছেন; যার কয়েক প্রজন্ম ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীতে কাজ করেছে।

১৯৭৮ সালে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট হিসেবে যোগ দেন জেনারেল রাওয়াত। চার দশক ধরে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিলেন তিনি। ভারত-অধিকৃত কাশ্মির এবং চীন সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় সামরিক বাহিনীর নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রাওয়াত।

ভারতের উত্তর-পূর্ব সীমান্ত এলাকায় বিদ্রোহীদের দমনের কৃতিত্ব দেওয়া হয় তাকে। এছাড়া প্রতিবেশী মিয়ানমারে আন্তঃসীমান্ত বিদ্রোহবিরোধী অভিযানের নেতৃত্বও দিয়েছিলেন তিনি।

রাওয়াতকে ভারতের ক্ষমতাসীন নরেন্দ্র মোদি নেতৃত্বাধীন সরকারের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হিসেবে মনে করা হতো। গত মাসে অধিকৃত কাশ্মিরে সন্ত্রাসীদের পিটিয়ে হত্যার অনুমোদন দেওয়া নিয়ে এক মন্তব্য করে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন তিনি।

সূত্র: এএফপি, এনডিটিভি।

এসএস

Link copied