করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করল অস্ট্রিয়া

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২১ জানুয়ারি ২০২২, ০১:২৩ পিএম


করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করল অস্ট্রিয়া

ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস মহামারি প্রতিরোধে ভ্যাকসিন ম্যানডেটের অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়ার পার্লামেন্ট। এর ফলে আগামী ফেব্রুয়ারি মাস থেকে দেশটির সব প্রাপ্তবয়স্ককে বাধ্যতামূলকভাবে করোনার টিকা নিতে হবে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সদস্যভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে অস্ট্রিয়াই প্রথম দেশ, যারা এই সিদ্ধান্ত নিলো।

অবশ্য অস্ট্রিয়াসহ ইইউভুক্ত দেশগুলোতে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে করোনার টিকা ও এ সংক্রান্ত কড়াকড়ির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। সেই বিক্ষোভকে উপেক্ষা করেই এই সিদ্ধান্ত নিলো অস্ট্রিয়া।

সংবাদমাধ্যম বলছে, অস্ট্রিয়ার পার্লামেন্টে করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করার এই ভ্যাকসিন ম্যানডেট বিপুল ভোটে অনুমোদিত হয়েছে। অতি-ডানপন্থিরা এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছেন। প্রস্তাবের পক্ষে ১৩৭টি ভোট পড়েছে, বিপক্ষে ৩৩টি।

এই প্রস্তাব অনুমোদিত হওয়ার ফলে আগামী মার্চ মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রথম পর্ব চলবে। যারা ভ্যাকসিন নিতে অস্বীকার করবেন, তাদের তিন হাজার ৬০০ ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় তিন লাখ টাকার বেশি) জরিমানা দিতে হবে। তবে গর্ভবতী নারী এবং যারা চিকিৎসার কারণে এ টিকা নিতে পারবেন না, তারা ছাড় পাবেন। শুধুমাত্র প্রাপ্তবয়স্কদেরই বাধ্যতামূলকভাবে টিকা নিতে হবে।

এদিকে পার্লামেন্টে এই আইন পাসের সময় অতি-দক্ষিণপন্থি দল বলে পরিচিত ফ্রিডম পার্টি অব অস্ট্রিয়া ভ্যাকসিন-বিরোধী বিক্ষোভ আয়োজন করে। দলটির নেতা জানিয়েছেন, তারা বিক্ষোভ দেখাবেন এবং তিনি নিজে টিকা নেবেন না। কিন্তু বাকি দলগুলো ভ্যাকসিন দেওয়ার পক্ষে মত দিয়েছে।

অস্ট্রিয়ার জনসংখ্যা ৯০ লাখ। করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এক হাজার ৪০০ মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এবং ১৫ লাখ মানুষ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন। অবশ্য দেশটির ৭০ শতাংশ মানুষ করোনা টিকার দু’টি ডোজ নিয়েছেন।

এর আগে মহামারি প্রতিরোধে তাজিকিস্তান, তুর্কিমেনিস্তান, ইন্দোনেশিয়ার মতো দেশগুলো করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করেছে। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলো অস্ট্রিয়াও।

সূত্র : ডয়চে ভেলে

টিএম

Link copied