এই মন্দিরের সংস্পর্শে এলেই নিশ্চিত মৃত্যু, যা রয়েছে সেখানে

Dhaka Post Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৭:৩৪ এএম


এই মন্দিরের সংস্পর্শে এলেই নিশ্চিত মৃত্যু, যা রয়েছে সেখানে

বিশ্বজুড়ে এমন কিছু জায়গা রয়েছে যা আর পাঁচটা জায়গার থেকে আলাদা বলেই মনে করা হয়। শুধুমাত্র বিশেষ কিছু কারণের জন্যই এই জায়গাগুলো আলাদা হয়ে থাকে। তেমনই একটি জায়গার বিশেষ কিছু তথ্য এখানে দেওয়া হলো। 

তুরস্কের অন্যতম প্রাচীন শহর হিরাপোলিস। এখানেই রয়েছে একটি প্রাচীন মন্দির, যাকে নরকের দরজা (দ্য গেট অব হেল) বলে অভিহিত করা হয়। কথিত আছে, যে এই মন্দিরের কাছাকাছি যান তারই মৃত্যু নাকি অবধারিত। আবার এই মন্দিরে কেউ প্রবেশ করলে তার আর কোনো খোঁজ মেলে না। 

সায়েন্স অ্যালার্ট ডটকম অনুসারে, এ জায়গাটিকে নরকের দ্বার বলা হয়। কারণ, গত কয়েক বছর ধরে এই মন্দিরে যারাই যাচ্ছেন, তাদের রহস্যময় মৃত্যু হচ্ছে। এমনকি, এই মন্দিরের কাছাকাছি কোনো প্রাণী গেলেও তার মৃত্যু হচ্ছে। 

স্থানীয়দের মতে, এই মন্দিরে থাকা গ্রিক দেবতার বিষাক্ত নিশ্বাসেই মৃত্যু হচ্ছে এর সংস্পর্শে আসা সমস্ত প্রাণীদের। জানা যায়, গ্রিক-রোমানের রাজত্বকালে এই মন্দিরে নরবলি দেওয়া হতো।

বলা হয় এই মন্দিরের সংস্পর্শে এলে মানুষ, জন্তু, এমনকি পাখিদেরও মৃত্যু অবধারিত। আর তার জন্যই এই মন্দিরের গেটকে দ্য গেট অব হেল বলেন স্থানীয়রা। 

রহস্যের উন্মোচন করলেন বৈজ্ঞানিকরা

দীর্ঘদিন ধরে গবেষণার পর জানা যায়, এই মন্দিরের নিচ দিয়ে ক্রমাগত কার্বন ডাই অক্সাইড প্রবাহিত হয়। আর এজন্যই মন্দিরের সংস্পর্শে যারাই আসে তাদেরই তাৎক্ষণিক মৃত্যু হয়।

অদ্ভুত এই মন্দিরকে ঘিরে বিশ্বজুড়ে রহস্য দানা বেঁধেছে পর্যটক থেকে বিজ্ঞানীদের মনে। তবে, মৃত্যুর এই রহস্যের মাঝে কেউ সামনে থেকে দেখতে যাওয়ার সাহস পান না।

সূত্র : জিনিউজ

ওএফ

Link copied