৪১তম বিসিএস লিখিত পরীক্ষা : বাংলায় ভালো করার কৌশল

Wahid Tausif (Musa)

২১ নভেম্বর ২০২১, ০১:১০ পিএম


৪১তম বিসিএস লিখিত পরীক্ষা : বাংলায় ভালো করার কৌশল

২৯ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ৪১তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা। এতে ভালো নম্বরের জন্য বাংলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। শেষ মুহূর্তের একটি কৌশলগত প্রস্তুতি আপনাকে আরও একধাপ এগিয়ে রাখবে। এ নিয়ে ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার আলোকে পরামর্শ দিয়েছেন ৩৮তম বিসিএসে সুপারিশ প্রাপ্ত সহকারী পুলিশ সুপার জহিরুল ইসলাম কাজল-

প্রথমেই মনে রাখা জরুরি, হাতে একদম সময় নেই। এই অল্প সময়ে মাথা ঠাণ্ডা রেখে সেরা প্রস্তুতি নিতে হবে। এই মুহূর্তে ঢালাওভাবে পড়াশোনা না করে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো গুরুত্ব দিতে হবে।

প্রস্তুতি যেভাবে

১। ব্যাকরণ অংশের জন্য বিগত বছরের প্রশ্ন ও গুরুত্বপূর্ণ ৫-৭ টি টপিক নিয়ে পড়াশোনা করতে হবে।

২। ভাব-সম্প্রসারণ ও সারমর্ম নতুন করে পড়ার কিছু নেই। ৩-৪টা অনুশীলন করলেই হবে। যাদের পড়া কম হয়েছে, তাদের শুধু মূলবিষয়টা পড়তে হবে। আমরা যাকে রিডিং দেওয়া বলি।

৩। সাহিত্য বিষয়ক বিগত বছরের প্রশ্ন ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো রিভিশন দিতে হবে। বিখ্যাত সাহিত্যকর্ম, সাহিত্যের বিভিন্ন ধারা, যুগান্তকারী ঘটনা বা সাময়িকী, ব্যক্তি বা রচনার বিষয়ে জ্ঞান রাখতে হবে। সংক্ষিপ্ত প্রশ্নে যা চাওয়া হয়েছে উত্তরে শুধু তাই লিখতে হবে। অতিরঞ্জন বা জ্ঞানগর্ভ আলোচনার দরকার নেই।

৪। এই মুহূর্তে অনুবাদ পড়ে সময় নষ্ট করার দরকার নেই। ৩-৫টি অনুবাদ অনুশীলন করুন, মস্তিষ্ক চালু রাখার জন্য। আশাকরি এতেই কাজে দেবে।

৫। সংলাপের ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো হয়, কারো সঙ্গে একটি বিষয়ে আলাপ করা।

৬। গ্রন্থ সমালোচনার জন্য ভাষা আন্দোলন ভিত্তিক নাটক, মুক্তিযুদ্ধ, সমুদ্র উপকূলবর্তী সমাজের উপর রচিত উপন্যাস, বঙ্গবন্ধুর রচিত বইগুলো সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে।

৭। বিভিন্ন ধরনের পত্র বিশেষভাবে পত্রিকায় প্রকাশের জন্য পত্র, অবশ্যই খাতায় লিখে অনুশীলন করুন। ফরম্যাট শিখে, বেশ কিছু পত্র পড়ে নিন।

যে ভুল করা যাবে না

১। বানান ভুল একদমই করা যাবে না।

২। পত্রের নমুনায় ভুল করা যাবে না।

৩। দীর্ঘ সারমর্ম লিখা যাবে না।

৪। ভাব-স্পর্শনে কঠিন ভাষা ব্যবহার করা যাবে না।

পরীক্ষা কেন্দ্রে সময় কেমন পাওয়া যায়?

বাংলা পরীক্ষায় প্রাসঙ্গিক ও সংক্ষিপ্ত ভাবে সাজিয়ে লিখলে সময় পাওয়া যাবে। কৌশলী হয়ে লিখলে ৪০ মিনিট সময় নিয়ে রচনাটিকে শিল্পগুণ সমৃদ্ধ করে লেখার সময়ও পাওয়া যায়।

আরেকটি কথা

সময়ের প্রতি খেয়াল রেখে নিজের সেরাটা দিতে চেষ্টা করুন। ইনশাআল্লাহ সফলতা আসবেই। পাশাপাশি নিজের প্রস্তুতির ওপর আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠুন। 

Link copied