ড্যাপের গেজেটের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৪৩ এএম


ড্যাপের গেজেটের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) সংশোধিত মাস্টারপ্ল্যান ড্যাপের গেজেটের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করা হয়েছে।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ এ রিট দায়ের করেন। পিআইডব্লিউর চেয়ারম্যান, রাজউকের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

গত ২৩ আগস্ট রাজধানী ঢাকাকে আধুনিক ও বাসযোগ্য নগর হিসেবে গড়ে তুলতে ২০ বছর (২০১৬-২০৩৫ সাল) মেয়াদি ডিটেইল এরিয়া প্ল্যানের (ড্যাপ) গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে। এর মাধ্যমে ২০১০ সালে পাস হওয়া ড্যাপ কার্যকারিতা হারালো।

এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়।

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, রাজউকের এখতিয়ারভুক্ত ১৫২৮ বর্গকিলোমিটার এলাকার জন্য ঢাকা মহানগর এলাকার ড্যাপের (২০১৬–২০৩৫) খসড়া ২০২০ সালে প্রকাশ করা হয়। এরপর খসড়ার ওপর সুপারিশ ও আপত্তি দাখিল করার জন্য সবার কাছে আহ্বান জানানো হয়। পরে আপত্তি ও সুপারিশ বিবেচনা করে মহাপরিকল্পনাটি অনুমোদন করা হয়েছে। এটি অবিলম্বে কার্যকর হবে। পাশাপাশি ২০১০ সালে পাস হওয়া ড্যাপ রহিত করা হলো। কিন্তু প্রজ্ঞাপন প্রকাশের আগ পর্যন্ত ২০১০ সালের ড্যাপের অধীনে যেসব কাজ শেষ হয়েছে বা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সেগুলো বৈধ বলে গণ্য হবে।

রিট দায়ের করার বিষয়ে অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ ঢাকা পোস্টকে বলেন, ড্যাপের নতুন গেজেট অনুযায়ী অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। আমি নিজেও ক্ষতিগ্রস্ত। বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় আমার ৫টি প্লট রয়েছে। ২০১০ সালের ড্যাপের পরিকল্পনায় এগুলো অন্তর্ভুক্ত ছিল না। কিন্তু নতুন গেজেট অনুযায়ী আমার প্লটগুলো ড্যাপের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এ কারণে বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট  দায়ের করেছি।

এমএইচডি/এসএম

Link copied