শীতে অলসতা করেও ওজন কমাবেন যেভাবে

Dhaka Post Desk

লাইফস্টাইল ডেস্ক

২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২:০৩ পিএম


শীতে অলসতা করেও ওজন কমাবেন যেভাবে

তাপমাত্রা কমলেই আমরা সবাই একটু অলস হয়ে যাই, এই বিষয়ে বেশিরভাগ মানুষই একমত হবে। শীত এলে আমাদের শারীরিক কার্যকলাপের মাত্রা কমে যায় এবং সেইসঙ্গে বেড়ে যায় খাওয়ার পরিমাণ। এই অভ্যাসগুলো ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার ক্ষেত্রে বাধার সৃষ্টি করে। আপনার ক্ষেত্রেও কি এমনটা ঘটে? 

ধরে নিলাম, আপনি কিছুটা অলস। শীত এলে এই অলসতা আরও বেড়ে যায়। এই অলসতা বজায় রেখেও আপনি শীতে ওজন কমাতে পারবেন। আপনাকে যা করতে হবে তা হলো একটু বুদ্ধি খাটিয়ে চলা। শীত আপনার কোনো প্রচেষ্টা ছাড়াই শরীর বিস্ময়করভাবে কাজ করতে পারে, শুধুমাত্র যদি আপনি জানেন কিভাবে এটি আপনার পক্ষে নিয়ে আসা যায়। এই শীতে যারা ওজন কমানোর চেষ্টা করছেন তাদের জন্য উপকারী ৫টি অলস কৌশল জেনে নিন-

একটু কাঁপুনি

খুব ভোরে তো শীত বেশি থাকে। এসময় গরম কাপড় ছাড়া হাঁটতে বের হওয়ার প্রশ্নই আসে না! কিন্তু যখন আবহাওয়া সহনীয় হয়, হতে পারে তা বিকেল বা সূর্য অস্ত যাওয়ার আগে, বাইরে যান। গবেষণা অনুসারে, শীতের মধ্যে দশ-পনের মিনিট কাঁপুনিতে প্রায় এক ঘণ্টার ব্যায়ামের সমান ক্যালোরি বার্ন হয়। শুধু তাই নয় এটি আপনার পেশীও সংকোচন করে।

সময় মেনে স্বাস্থ্যকর খাবার খান

এটি প্রমাণিত যে শীত আমাদের বেশি খেতে বাধ্য করে। ঠান্ডা তাপমাত্রায় শরীরকে উষ্ণ রাখতে আমাদের প্রতিদিনের ক্যালোরির চাহিদা বাড়ে। চেইন ভাঙার কৌশল হলো সময়মতো খাওয়া এবং স্বাস্থ্যকর ও ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার দিয়ে আপনার প্লেট পূরণ করা। ফাইবার আপনার পেট দীর্ঘ সময়ের জন্য ভরিয়ে রাখে, অস্বাস্থ্যকর খাবারের লোভ রোধ করে। একবারে অনেক খাবার না খেয়ে পরিমিত খান।

গরম পানি এড়িয়ে চলুন

বেশিরভাগ মানুষই ঠান্ডা ঋতুতে গরম পানি পান করতে পছন্দ করেন। আপনি যদি আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান তবে ঠান্ডা পানি পান করুন। গবেষণায় দেখা গেছে যে, শরীরের মূল তাপমাত্রার চেয়ে বেশি ঠান্ডা তরল খেলে তখন শরীর নিজেকে গরম করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে। এই প্রক্রিয়াটি ওজন কমানোর জন্য প্রয়োজনীয় প্রচুর ক্যালোরি পোড়াতে সাহায্য করে। ঠান্ডা পানি পান করতে না পারলে অন্তত স্বাভাবিক পানি খাওয়ার চেষ্টা করুন।

ভেষজ চা এবং ব্ল্যাক কফি পান করুন

কফি, চিনি এবং দুধ চায়ের পরিবর্তে ভেষজ চা এবং ব্ল্যাক কফি পান করুন। ভেষজ চা, ব্ল্যাক টি বা ব্ল্যাক কফিতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং প্রদাহরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এগুলো নিয়মিত পান করলে তা আপনার বিপাককে ত্বরান্বিত করতে পারে এবং দ্রুত চর্বি পোড়াতে সাহায্য করতে পারে।

ঘরের কাজ করুন

আপনি যদি ব্যায়ামের জন্য বাইরে যেতে না চান তবে ঘরের ভিতরে শারীরিক কার্যকলাপে নিজেকে জড়িত করুন। আপনি জেনে অবাক হবেন যে, ঘরের কাজ যেমন পরিষ্কার করা, কাপড় ধোওয়া, বাসন ধোওয়া মোপিং, বাগান করা এবং অন্যান্য কাজ আপনাকে যথেষ্ট ক্যালোরি পোড়াতে সাহায্য করতে পারে। বসে থেকে কাজ করার সময়, প্রতি ৩০ মিনিট পর আপনার আসন থেকে উঠুন এবং আপনার চারপাশে একটু হাঁটুন। এতেও ক্যালোরি পোড়ানো সহজ হবে।

Link copied