মুক্তিযুদ্ধের গুরুত্বপূর্ণ দলিল ‘অপারেশন এক্স’

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৯ নভেম্বর ২০২১, ০৬:২০ পিএম


মুক্তিযুদ্ধের গুরুত্বপূর্ণ দলিল ‘অপারেশন এক্স’

‘অপারেশন এক্স’ বইয়ের পর্যালোচনা ও বাংলা সংস্করণ পাঠের অনুষ্ঠান

মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় নৌবাহিনী এবং মুক্তিবাহিনীর যৌথ নৌ-কমান্ডো অভিযানের ঘটনাবলী নিয়ে লেখা ‘অপারেশন এক্স’ বইয়ের পর্যালোচনা ও বাংলা সংস্করণ পাঠের আয়োজন করেছে ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন। 

মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনে বইটির গুরুত্বপূর্ণ অংশ ইংরেজিতে পাঠ করেন ভারতের সাংবাদিক সন্দীপ উন্নিথান। আর বাংলায় পাঠ করেন বাংলাদেশের জ্যৈষ্ঠ সাংবাদিক সালিম সামাদ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, এটি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অজানা কাহিনী ও ইতিহাসের অনন্য দলিল। 

‘অপারেশন এক্স’ বইয়ের বাংলা সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন

তারা বলেন, অপারেশন এক্স দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে বিশ্বে পরিচালিত বৃহত্তম গোপন অভিযান। পূর্ব পাকিস্তানে ভারতের গোপন নৌযুদ্ধের অপ্রকাশিত গল্প নিয়ে সাজানো হয়েছে বইটি। এটি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের একটি গুরুত্বপূর্ণ দলিল, যার মাধ্যমে পাঠকরা জানতে পারবে মুক্তিযুদ্ধের অজানা কাহিনী। 

সোমবার (৮ নভেম্বর) রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে ‘অপারেশন এক্স’ বইয়ের বাংলা সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। 

৪৮ বছর ধরে অপ্রকাশিত মুক্তিযুদ্ধের এসব বীরত্ব গাঁথা প্রথম ইংরেজিতে প্রকাশিত হয় ২০১৯ সালে। এই বইতেই মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় নৌযোদ্ধাদের অপারেশনের বর্ণনা উঠে আসে প্রথম। ভারতীয় নৌবাহিনীর কর্মকর্তা প্রয়াত ক্যাপ্টেন এমএনআর সামন্তের ব্যক্তিগত নোট এবং অপারেশনে অংশ নেওয়া ভারতীয় নৌসেনা ও মুক্তিযোদ্ধাদের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতার আলোকে বইটি সংকলিত হয়েছে। 

বইটি লিখেছেন ক্যাপ্টেন এমএনআর সামন্ত এবং সন্দীপ উন্নিথান। এর বাংলা অনুবাদ করেছেন যশোদা জীবন দেবনাথ। ইংরেজি বইটি প্রকাশ করে হারপারকলিন্স পাবলিকেশনস। বাংলায় প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের বইপত্র প্রকাশন।

বইটির সহ-লেখক প্রয়াত এমএনআর সামন্ত ভারতীয় নৌবাহিনীর হয়ে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে গোপন এই অপারেশনের নেতৃত্বে ছিলেন। অপারেশনটির পরিকল্পনা করেছিলেন তৎকালীন ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল এসএম নন্দা ও ক্যাপ্টেন (পরবর্তীতে ভাইস অ্যাডমিরাল) মিহির কে রায়।

এনআই/এইচকে 

Link copied