এটিজেএফবির সভাপতি তানজিম, সম্পাদক সবুজ

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১১ নভেম্বর ২০২২, ০৬:৫৯ পিএম


এটিজেএফবির সভাপতি তানজিম, সম্পাদক সবুজ

তানজিম আনোয়ার (বাঁয়ে) ও জিয়াউল হক সবুজ (ডানে)

বিমান ও পর্যটন খাতের সাংবাদিকদের সংগঠন এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরামের (এটিজেএফবি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংগঠনটির আগামী দুই বছরের জন্য সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন তানজিম আনোয়ার (বাসস) ও সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হক সবুজ (বাংলাভিশন)। 

শুক্রবার (১১ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর বিজয়নগর এলাকার পল্টন টাওয়ারের ইআরএফ মিলনায়তনে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে সভাপতি পদে তানজিম আনোয়ারের কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল না। এদিকে ১৭টি ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সবুজ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মঞ্জুরুল ইসলাম (বণিক বার্তা) পেয়েছেন ১০টি ভোট। 

নির্বাচনে কার্যনির্বাহী পদে সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন খালিদ আহসান (বাংলাদেশ টেলিভিশন-বিটিভি)। তিনি সর্বোচ্চ ২০টি ভোট পান।

এর আগে সকাল দশটা থেকে একটা পর্যন্ত চলে বার্ষিক সাধারণ সভা। সভায় বিগত কমিটি তাদের আয়-ব্যয়সহ নানা বিষয় তুলে ধরে। এরপর শুরু হয় নির্বাচন।

নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন রাজীব ঘোষ। আর জয়েন্ট সেক্রেটারি হিসেবে ১৮টি ভোট নির্বাচিত হয়েছেন বাতেন বিপ্লব (এশিয়ান টেলিভিশন)। ‌‌ তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মুক্তাদির রশিদ রোমিও (নিউ এজ) পেয়েছেন ৯টি ভোট। 

এদিকে ইমরুল কাউসার ইমন ১৮টি ভোট পেয়ে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জুলহাস কবির পেয়েছেন ৯টি ভোট। 

অন্যদিকে কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে সর্বোচ্চ ২০টি ভোট পেয়েছেন খালিদ হাসান। অন্যদের মধ্যে ডেইলি স্টারের রাশেদুল হাসান ১৯টি ও দৈনিক কালের কণ্ঠের মাসুদ রুমি ১৬টি, যায়যায়দিনের আলতাব হোসেন ও নিউজ বাংলার আশিক হোসেন ১৫টি করে ভোট পেয়ে কার্যনির্বাহী সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।  

এছাড়াও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংগঠনের প্রচার সম্পাদক হিসেবে আকবর হোসেন চৌধুরী (বাংলা ট্রিবিউন) ও দপ্তর সম্পাদক হিসেবে মাহফুজ কামাল (চ্যানেল-২৪) নির্বাচিত হন। 

প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নির্বাচন পরিচালনা করেন এটিজেএফবির সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মশিউর রহমান। এছাড়াও নির্বাচন কমিশনের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের নিজস্ব প্রতিবেদক গোলাম মুজতবা ধ্রুব ও ডেইলি সানের সাবেক রিপোর্টার সোহেল রানা। ‌

এআর/কেএ

Link copied