ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের ফেলোশিপ পেলেন ৪ সাংবা‌দিক

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ জুলাই ২০২১, ০৮:০৬ পিএম


ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের ফেলোশিপ পেলেন ৪ সাংবা‌দিক

মাসুদ রুমী, মো. আখতারুজ্জামান, ডলার মেহেদী ও জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না (বাঁ থেকে ডানে))

বাংলাদেশে তামাকবিরোধী সাংবাদিকতায় ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের ফেলোশিপ পেলেন চার গণমাধ্যমকর্মী। তারা হলেন- মাসুদ রুমী (কালের কণ্ঠ), মো. আখতারুজ্জামান (আমাদের অর্থনীতি) ডলার মেহেদী (৭১টিভি) ও জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না (আমাদের নতুন সময়)।

বুধবার (৭ জুলাই) এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের পক্ষ থেকে ফেলোশিপপ্রাপ্ত চার গণমাধ্যমকর্মীর নাম ঘোষণা করা হয়। 

ক্যাম্পেইন ফর টোবাকো ফ্রি কিডস বাংলাদেশের লিড পলিসি অ্যাডভাইজার মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে সাংবাদিক ফেলোশিপের বিজয়ী ঘোষণা এবং পুরষ্কার প্রদানের ভার্চুয়াল এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মকবুল হোসেন এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন করেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য ও ওয়াশ সেক্টরের পরিচালক ইকবাল মাসুদ। এছাড়া অতিথি হিসেবে ফেলোশিপ প্রাপ্তদের অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের সাধারণ সম্পাদক এসএম রাশেদুল ইসলাম।

ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের মিডিয়া ম্যানেজার রেজাউর রহমান রিজভীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে ফেলোশিপের ওপর বিশেষ প্রেজেন্টশন উপস্থাপন করেন তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের সমন্বয়ক মো. শরিফুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ফেলোশিপ প্রাপ্ত চার গণমাধ্যমকর্মী ছাড়াও অংশগ্রহণকারী অন্যান্য গণমাধ্যমকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন।

চলতি বছরের এপ্রিলে তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে আইনের সংশোধন জরুরি- এ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে তামাকবিরোধী সাংবাদিকতায় ফেলোশিপ প্রদানের লক্ষ্যে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছ থেকে আবেদন আহ্বান করা হয়। 

প্রাথমিক বাছাইয়ের পর ২৫ জন গণমাধ্যমকর্মী কর্মশালায় অংশ নেন। তাদের মধ্যে থেকে ১৪ জনের মোট ২১ প্রতিবেদন প্রকাশিত বা প্রচারিত হয়। এ ২১ প্রতিবেদনের মধ্য থেকে চারটি প্রতিবেদনকে সেরা হিসেবে বাছাই করে প্রতিবেদকদের ফেলোশিপ দেওয়া হলো।

ফেলোশিপপ্রাপ্তরা পুরস্কার হিসেবে সনদপত্রের পাশাপাশি ২০ হাজার টাকা করে সম্মানী পাবেন। এছাড়া প্রতিবেদন জমা দেওয়া অন্যান্য অংশগ্রহণকারীরাও সনদপত্র পাবেন বলে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের পক্ষ থেকে জানা গেছে।

এসআই/আরএইচ

Link copied