ডিআরইউ সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৬:৫০ পিএম


ডিআরইউ সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

নবনির্বাচিত সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) নির্বাচনে সভাপতি পদে নজরুল ইসলাম মিঠু এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নুরুল ইসলাম হাসিব বিজয়ী হয়েছেন। 

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকাল ৯টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ডিআরইউ কার্যালয়ে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। এক ঘণ্টা বিরতি দিয়ে সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুরু হয় ভোট গণনা। এবার নির্বাচনে ১ হাজার ৩২৬ জন সদস্য ভোট প্রদান করেছেন।‌

সন্ধ্যা পৌনে ৭টায় নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনার মনজুরুল আহসান বুলবুল। 

সভাপতি

৪৪৯ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হওয়া নজরুল ইসলাম মিঠুর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াজ চৌধুরী পেয়েছেন ৩০৪ ভোট। এছাড়া সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে সাখাওয়াত হোসেন বাদশা পেয়েছেন ২৫৩ ভোট, কবির আহমেদ খান ২৩৬ ভোট এবং সৈয়দ শুকুর আলী শুভ ১৯৯ ভোট পেয়েছেন।

Dhaka Post
ডিআরইউ নির্বাচনের ফল ঘোষণার পরে অন্যান্যদের সঙ্গে নবনির্বাচিত সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু ও সম্পাদক নুরুল ইসলাম হাসিব

সহ-সভাপতি

সহ-সভাপতি পদে চারজন প্রার্থীর মধ্যে সর্বাধিক ৩৮৩ ভোট পেয়েছেন ওসমান গনি বাবুল। রাশেদুল হক‌ পেয়েছেন ৩৫৮ ভোট, আতিকুর রহমান ৩০০ ভোট, আবুল বাশার নুরু পেয়েছেন ২৯৪ ভোট।

সাধারণ সম্পাদক

সাধারণ সম্পাদক পদে পাঁচজন প্রার্থীর মধ্যে সর্বাধিক ৫০০ ভোট পেয়েছেন নূরুল ইসলাম হাসিব। মসিউর রহমান খান পেয়েছেন ৩৩৬ ভোট, তোফাজ্জল হোসেন ২৩১ ভোট, মো. মঈন উদ্দিন খান ২২৭ ভোট এবং জামিউল আহসান সিপু ১৪৮ ভোট পেয়েছেন। 

Dhaka Post

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে দুই প্রার্থীর মধ্যে শাহনাজ শারমীন ৮৩২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মঈনুল আহসান পেয়েছেন ৫৮৯ ভোট। 

অর্থ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী দুই প্রার্থীর মধ্যে এস এম এ কালাম ৬৭৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, অন্য প্রার্থী শাহ আলম নূর পেয়েছেন ৫৪১ ভোট।  

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আব্দুল্লাহ আল কাফি ৮৩৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী সাইফুল ইসলাম পেয়েছেন ৫৬৫ ভোট। 

দফতর সম্পাদক পদে রফিক রাফি ৭১৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী কাওসার আজম ৬০৫ ভোট পেয়েছেন।  

নারী বিষয়ক সম্পাদক পদে তাপসী রাবেয়া আঁখি ৮৫৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না পেয়েছেন ৪৯৫ ভোট। 

প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে কামাল উদ্দিন সুমন ৭২৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, প্রতিদ্বন্দ্বী এম. উমর ফারুক পেয়ছেন ৫২৩ ভোট। 

তথ্যপ্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক পদে একমাত্র প্রার্থী হিসেবে কামাল মোশারেফ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

ক্রীড়া সম্পাদক পদে মাকসুদা লিসা ৭২৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, অন্য প্রার্থী মো. কবিরুল ইসলাম ৬২২ ভোট পেয়েছেন। 

সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে নাদিয়া শারমিন ৯৭৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী সায়ীদ আবদুল মালিক ৪৩০ ভোট পেয়েছেন। 

আপ্যায়ন সম্পাদক পদে একমাত্র প্রার্থী হিসেবে মুহাম্মাদ আখতারুজ্জামান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। 

কল্যাণ সম্পাদক পদে কামরুজ্জামান বাবলু ৭৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী জাহাঙ্গীর কিরণ পেয়েছেন ৫০১ ভোট।  

কার্যনির্বাহী সদস্য সাতটি পদের বিপরীতে ৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৮২১ ভোট  পেয়েছেন হাসান জাবেদ। এরপর মাহমুদুল হাসান ও সোলাইমান সালমান উভয়ই পেয়েছেন ৭৩৯টি করে ভোট। সুশান্ত কুমার সাহা ৭০১, মো. আল-আমিন ৬৮৬, এসকে রেজা পারভেজ ৬৬৫, মো. তানভীর আহমেদ ৬৪৪, মোহাম্মদ ছলিম উল্লাহ (মেজবাহ) ৬৪৪ এবং মহসিন বেপারী ৬০১ ভোট পেয়েছেন। 

এবার ডিআরইউর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন প্রবীণ সাংবাদিক, দি ফিনান্সিয়াল হেরাল্ড সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ। 

পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশনে ছিলেন বিএফইউজের সাবেক সভাপতি ও টিভি টুডের এডিটর-ইন-চিফ মনজুরুল আহসান বুলবুল, বিএফইউজের সাবেক মহাসচিব এম এ আজিজ, ডিইউজের সাবেক সভাপতি শাহজাহান মিয়া এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের। 

এইউএ/এইচকে 

Link copied