মালিকপক্ষের কাউকে পাচ্ছি না, অভিযোগ ফায়ারের ডিজির

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৫ জুন ২০২২, ১১:১৩ এএম


মালিকপক্ষের কাউকে পাচ্ছি না, অভিযোগ ফায়ারের ডিজির

বিভীষিকাময় রাত শেষে ১৩ ঘণ্টা পেরিয়ে গেছে। এখনো পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি চট্টগ্রামের বিএম কনটেইনার ডিপোতে লাগা ভয়াভহ আগুন। সর্বশেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী (বেলা ১১টা) আগুনে পাঁচ ফায়ার ফাইটারসহ ৩৩ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন দুই শতাধিক।

রোববার (৬ জুন) সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাইন উদ্দিন। তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাইন উদ্দিন বলেন, আগুন লাগার খবর পাওয়ার পর রাত থেকেে আমরা এখানে কাজ করছি। লাশের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, অগ্নিকাণ্ডের পর থেকে মালিকপক্ষ কাউকে পাচ্ছি না। মালিকদের কাউকে পেলে আমরা জানতে পারতার কোন কনটেইনারে কী আছে। এটা আমাদের জানা নেই। এজন্য উদ্ধার কাজে আমাদের বেগ পেতে হচ্ছে।

মহাপরিচালক আরও বলেন, আমরা এখনো ভেতরে পুরোপুরি ঢুকতে পারছি না। এ ঘটনায় ফায়ারের পক্ষ থেকে পাঁচ সদস্যে কমিটি করা হয়েছে।

সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ার কোরের বিশেষ টিম কাজ করছে। কনটেইনারগুলোতে যেহেতু কেমিক্যাল ছিল সেজন্য ঢাকা থেকে ফায়ারের ২০ সদস্যের হেজবোর্ড টিম আনা হচ্ছে। তারা বিদেশ থেকে বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। 

ফায়ার ফাইটারসহ যারা হতাহত হয়েছেন তাদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মহাপরিচালক বলেন, আমি মাত্র দশ দিন আগে এখানে দায়িত্ব নিয়েছি। এরকম একটি ঘটনায় আমি খুবই মর্মাহত। 

আগুনের নেভাতে গিয়ে পাঁচ ফায়ার ফাইটার নিহত হয়েছেন— জানিয়ে মাইন উদ্দিন বলেন, আমার পাঁচ সহকর্মী নিহত হয়েছেন। আরও ২১ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ১৫ জন সিএমএইচে ভর্তি। বাকি ছয়জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

আগুন নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা করে যাচ্ছি— জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আগুন এখনো পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। তবে আমরা আয়ত্বের মধ্যে রাখতে পেরেছি। এখন পর্যন্ত কতজন নিখোঁজ তার কোনো তথ্য বা ধারণা আমার কাছে নেই। 

এখনো বিস্ফোরণ হচ্ছে, যার জন্য সময় নিচ্ছি। কাছে যেতে পারছি না। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফোম ব্যবহার করা হচ্ছে। কিন্তু কাজ হচ্ছে না। 

আগুন লাগার কারণ এখনো বলতে পারছি না— জানিয়ে তিনি বলেন, এ ঘটনায় গঠিত কমিটি তিন কার্যদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দেবে। এখন পর্যন্ত চট্টগ্রাম, ফেনী, কুমিল্লা ও খাগড়াছড়ির মোট ২৫টি ইউনিট কাজ করছে। সেনাবাহিনীর সদস্যরাও আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন।

শনিবার (৪ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারী এলাকার বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, এ দুর্ঘটনায় ৩৩ জন নিহত ও দুই শতাধিক আহত হয়েছেন। আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেলসহ আশপাশের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এসএম

টাইমলাইন

Link copied