চুরি করা গাড়ি নিয়ে পালানোর সময় নারীকে ধাক্কা, অতঃপর…

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১৭ আগস্ট ২০২২, ০১:১৭ পিএম


অডিও শুনুন

রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে একটি গাড়ি চুরি করে গাড়িচোর চক্রের কয়েকজন সদস্য। গাড়িটি নিয়ে ঢাকার বাইরে পালানোর সময় সেটি দিয়ে ধাক্কা দেয় এক নারীকে। ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। এরপর গাড়ি রেখে পালায় ঘাতকরা। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ধরা পরে পুলিশের হাতে। বেরিয়ে আসে গাড়ি চুরির রহস্য। 

বুধবার (১৭ আগস্ট) উত্তরার এই গাড়ি চুরির রহস্য উদঘাটন নিয়ে কথা বলেন উত্তরা পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল ইসলাম। 

তিনি বলেন, গত ১২ আগস্ট (শুক্রবার) উত্তরার ৪ নম্বর সেক্টরের ৮ নম্বর রোডের হোপ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের সামনে একটি টয়োটা এক্স করোলা ব্র্যান্ডের গাড়ি রেখে চালক অপু পাশের মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে যান। তিনি ফিরে দেখেন গাড়িটি নেই। বিষয়টি তিনি পুলিশকে জানান এবং পুলিশ তদন্ত শুরু করে।

আরও পড়ুন>> ভবিষ্যতে চোর না ডাকাত হবো বলতে পারব না : সিইসি

তদন্তে পুলিশ জানতে পারে, দুপুর অনুমান ১টা ১০ মিনিট থেকে ২টার মধ্যে অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজন গাড়িটি চুরি করে। এরপর ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে পর্যালোচনা করা হয়।

সিসিটিভিতে কয়েকজনের চেহারা শনাক্ত করে মো. জিতু মিয়া (২৬) ও মো. শহীদ মিয়াকে (২৮) হবিগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
গ্রেপ্তারের পর আসামিদের কাছ থেকে ৩টি প্লাইয়ার্স, ৪টি ইস্ক্রু ড্রাইভার, ইঞ্জিনের রোকার ২টি, টেস্টার ১টি, গাড়ির গ্যাসের সুইচ ১টি, চুরি করা ঢাকা মেট্রো-গ-১৯-৬২৭০ এর রেজি. কার্ড-ফিটনেস সনদ ও গাড়ির মালিক তৌফিক হাসান কিবরিয়ার জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি, ঢাকা মেট্রো-গ-২৩-৪৪১৯ এর টেক্স টোকেন, ফিটনেস সনদ, মালিকানা প্রাপ্তি স্বীকার রশিদ ও ইন্স্যুরেন্স এর কাগজপত্র, ঢাকা মেট্রো-গ-১২-৩৬৯১ গাড়ির ডিজিটাল নম্বরপ্লেট জব্দ করা হয়।

এতকিছু উদ্ধার হলেও তাদের কাছ থেকে চুরি যাওয়া গাড়িটি উদ্ধার করা যায়নি।

ওসি জহিরুল বলেন, আসামিদের দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্তে জানা গেছে, উত্তরা থেকে চুরি করা গাড়িটি শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানায় রয়েছে। গাড়িটি নিয়ে তারা পালানোর সময় শায়েস্তাগঞ্জে শিরিন বেগম নামে এক নারীকে ধাক্কা দেয়। ধাক্কা দিয়ে গাড়িটি ফেলে পালিয়ে যায় তারা। দীর্ঘ তদন্তের পর দুটি মামলার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ।

আরো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আসামিদের ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন দিয়ে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এআর/জেডএস

Link copied