এনক্রিপটেড অ্যাপসে সিকিউরিটি গার্ডের মাদক কারবার!

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৫০ পিএম


এনক্রিপটেড অ্যাপসে সিকিউরিটি গার্ডের মাদক কারবার!

রাজধানীর উত্তরা থেকে তিন কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর (ডিএনসি)। তাদের কাছ থেকে ৯ হাজার ৬৮০ পিস ইয়াবা ও ৩ গ্রাম আইস জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেপ্তাররা হলেন, কক্সবাজারের বাসিন্দা ও এলিট ফোর্স নামক একটি সিকিউরিটি সার্ভিস কোম্পানির গার্ড মো. ইসমাইল (৩২), একই জেলার বাসিন্দা ও একই কোম্পানির গার্ড রবিউল হাসান মামুন (২০) এবং সাতক্ষীরার কাপড় ব্যবসায়ী জাকারিয়া মাসুদ বাপ্পি (২৬)।

শনিবার বিকেলে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা মেট্রো কার্যালয়ের (উত্তর) সহকারী পরিচালক মো. মেহেদী হাসানের তত্ত্বাবধানে এবং রমনা সার্কেলের পরিদর্শক তমিজ উদ্দিন মৃধার নেতৃত্বে একটি বিশেষ দল উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরের রবীন্দ্র সরণি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা মেট্রো কার্যালয়ের (উত্তর) উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান বলেন, গ্রেপ্তাররা টেকনাফ, ঢাকার উত্তরা ও গাজীপুর-কেন্দ্রিক একটি সক্রিয় মাদক কারবারি চক্রের সদস্য।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মাদক কারবারির কৌশল সম্পর্কে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা টেকনাফ থেকে ইয়াবার চালান সংগ্রহ করে ঢাকা ও গাজীপুরের মাদক কারবারিদের কাছে পাইকারি দরে সরবরাহ করতেন। এলিট ফোর্স নামক সিকিউরিটি কোম্পানিতে গার্ডের চাকরির সুবাদে তাদের কেউ সন্দেহ করত না।

এ সিন্ডিকেটের সবাই গোপনীয়তার স্বার্থে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগের ক্ষেত্রে বিভিন্ন এনক্রিপটেড অ্যাপস ব্যবহার করেন। তারা কোনো নির্দিষ্ট ফোন নম্বর ব্যবহার  না করে ক্রমাগত নম্বর পরিবর্তন করতেন। 

এনক্রিপটেড অ্যাপসসমূহ বিশ্লেষণ করে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে, যা নিয়ে অধিকতর অনুসন্ধানপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান  মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা মেট্রো কার্যালয়ের (উত্তর) উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান।

 গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮ (সংশোধিত ২০২০) মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জেইউ/আরএইচ

Link copied