ওয়াসার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতিবাদ সমাবেশ

‘স্যার সৎ মানুষ, উ‌নি দুর্নী‌তি করতে পারেন না’

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

১২ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:০২ এএম


ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খানের প‌ক্ষে প্রতিষ্ঠান‌টির সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন। তারা বল‌ছেন, তাকসিম এ খানের বিরুদ্ধে যে সংবাদ প্রকাশিত হ‌য়ে‌ছে সে‌টি মিথ্যা ও বানোয়াট।

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) সকালে কাওরান বাজারে ঢাকা ওয়াসা ভবনের সামনে প্রতিষ্ঠান‌টির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রতিবাদ সমাবেশ করেন।

প্রতিবাদ সমাবেশে যোগ দেওয়া ওয়াসার কর্মকর্তা মো. র‌ফিকুল ইসলাম ব‌লেন, আমা‌দের স্যারের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দি‌য়ে সংবাদ প‌রি‌বেশন করা হ‌য়ে‌ছে। এর প্রতিবা‌দে আমরা ওয়াসার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রতিবাদ সমাবেশ কর‌ছি। যুক্তরা‌ষ্ট্রের মতো দেশে ১৪টা বা‌ড়ি কেনা একজনের পক্ষে সম্ভব ব‌লেন?

আরও পড়ুন >> জনগণের টাকায় আনন্দ উল্লাস! 

পুরান ঢাকার ওয়াসার এক নম্বর জোনের কর্মকর্তা জিয়া উ‌দ্দিন ব‌লেন, আমরা স্বেচ্ছায় প্রতিবাদ সমাবেশে এসে‌ছি। প‌ত্রিকায় মিথ্যা তথ্য দি‌য়ে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। স্যার সৎ মানুষ। উ‌নি দুর্নী‌তি করতে পারেন না।

ঢাকা ওয়াসার এমডি তাকসিম খানের যুক্তরাষ্ট্রে ১৪ বাড়ির যে তথ্য সামনে এসেছে তা নিয়ে অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

গত ৯ জানুয়ারি দৈনিক সমকালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন হাইকোর্টের নজরে আনেন দুদকের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশিদ আলম খান। প্রতিবেদনে বলা হয়, ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খানের যুক্তরাষ্ট্রে ১৪টি বাড়ি রয়েছে। এসব বাড়ির দাম টাকার অঙ্কে হাজার কোটি ছাড়াবে। 

দুদককে ১৫ দিনের মধ্যে এ বিষয়ে জানাতে বলেছে আদালত।

আরও পড়ুন >> টাকার নাকি পাখা গজাইছে! 

যদিও এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) তাকসিম এ খান দাবি করেন, যুক্তরাষ্ট্রে তার কোনো বাড়ি নেই। একটি বাড়ি আছে, সেটি তার স্ত্রীর নামে। সেখানে ১৪ বাড়ি থাকার ব্যাপারে মিথ্যা প্রতিবেদন করা হয়েছে।

২০০৯ সালে ঢাকা ওয়াসার এমডি হিসেবে নিয়োগ পান প্রকৌশলী তাকসিম এ খান। এরপর ধাপে ধাপে সময় বাড়িয়ে তিনি এখনও সেই পদে রয়েছেন। বারবার তার পুনর্নিয়োগের ক্ষেত্রে বিধি মানা হয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে। প্রথম নিয়োগের পর থেকে মোট ছয়বার তার মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

এনআই/ওএফ

Link copied