হেঁটেই ইজতেমার দিকে যাচ্ছেন হাজারও মানুষ

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৭:৪০ এএম


হেঁটেই ইজতেমার দিকে যাচ্ছেন হাজারও মানুষ

আর মাত্র সাড়ে তিন ঘণ্টা পর বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত। ধারণা করা হয়, হজের পরেই মুসলিম উম্মাহর দ্বিতীয় জামায়েত হয় টঙ্গীর তুরাগতীরে অবস্থিত বিশ্ব ইজতেমার ময়দানে।

রোববার (১৫ জানুয়ারি) ভোর সাড়ে ৬টায় রাজধানীর মিরপুর-১০ থেকে পল্লবী পর্যন্ত সরেজমিনে দেখা গেছে, ফজরের নামাজের পর থেকেই হাজার হাজার মানুষ হেঁটে রওনা হয়েছেন বিশ্ব ইজতেমা ময়দানের উদ্দেশে। মূলত ওই সময়ে যানবাহন না থাকায় দুর্ভোগ পড়তে হয়েছে তাদের। এছাড়া অনেকে হেটেই রওনা হয়েছেন।

মিরপুর-৬ নম্বর থেকে ইজতেমা ময়দানের উদ্দেশে যাওয়া আমিনুল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, ফজর নামাজের পর হালকা কিছু নাস্তা করেই রওনা হয়েছি। আমরা মহল্লার ৪-৫ জন একসঙ্গে যাচ্ছি। বেশিরভাগ মহল্লা থেকেই গতরাতে ছোট ছোট পিকআপ ভাড়া করেছিল। বেশিরভাগই যাচ্ছেন সেইসব পিকআপে। আমরা কয়েকজন হওয়ায় পিকআপ ভাড়া করা সম্ভব হয়নি। মিরপুর ডিওএইচএস থেকে লেগুনা সার্ভিস আছে, সেটি দিয়ে ময়দানের দিকে যাব। যেহেতু ডিওএইচএস পর্যন্ত কোনো বাস সার্ভিস নেই। তাই বাধ্য হয়ে হেঁটে যেতে হচ্ছে।

জিহাদুর রহমান নামের একজন বলেন, হেঁটেই ইজতেমা ময়দান পর্যন্ত যাব। আর ফেরার পথে গাড়িতে ফিরব। সেজন্যই ফজর নামাজ আদায় করে বাসায় হালকা নাস্তা করে এলাকার চার-পাঁচজনকে নিয়েই হাঁটা শুরু করেছি। যেহেতু শীতে সকাল, এখনো রোজ ওঠেনি। তাই হাঁটতে খুব একটা কষ্ট খারাপ লাগছে না।

মেট্রো রেল লাইনের নিচ দিয়ে তৈরি হওয়া নতুন রাস্তা ধরেই মিরপুর থেকে উত্তরা যাওয়া যায়। ফলে মিরপুরবাসীকে আর বিমানবন্দর হয়ে উত্তরা যেতে হবে না। এখন এই রাস্তা ধরেই উত্তরা হয়ে ইজতেমার মাঠে যাওয়া যাবে।

এমএইচএন/ওএফ

টাইমলাইন

Link copied