এমপি-সামরিক সচিবকে নিয়ে অপপ্রচার, যুবকের ১০ বছরের জেল

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৬ জানুয়ারি ২০২৩, ০৭:৫৪ পিএম


এমপি-সামরিক সচিবকে নিয়ে অপপ্রচার, যুবকের ১০ বছরের জেল

চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) প্রফেসর ড. আবু রেজা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী ও প্রধানমন্ত্রীর প্রয়াত সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মো. জয়নুলকে নিয়ে অপপ্রচারের দায়ে একজনকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও একবছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ জহিরুল কবির এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ওই যুবকের নাম মো. হারুনুর রশিদ ওরফে বডিবিল্ডার হারুন। তার গ্রামের বাড়ি লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর ইউনিয়নে। তার বাবার নাম মৃত ছিদ্দিক আহমেদ। 

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৭ সালের ১৯ জুন নগরের কোতোয়ালি থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি দায়ের হয়। লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগ নেতা ফজলে এলাহী আরজু বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছিলেন। পরবর্তীতে কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইমদাদ হোসেন চৌধুরী মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৮ সালের ২১ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এতে হারুনুর রশিদকে একমাত্র আসামি করা হয়।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মেজবাহ উদ্দিন ঢাকা পোস্টকে বলেন, মামলাটি বিচারিক পর্যায়ে আটজনের মধ্যে সাতজন সাক্ষী দিয়েছেন। একজন এর আগে মারা যাওয়ায় আদালতে সাক্ষ্য দিতে পারেননি। মামলার একমাত্র আসামির বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার অপরাধ প্রমাণিত হয়েছে। তাকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও এক বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তবে মামলাটিতে তিনি পলাতক রয়েছেন। 

আদালত সূত্র জানায়, হারুনুর রশিদ রাজধানীর মতিঝিল থানায় একটি প্রতারণা মামলায় ৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ পেয়েছিলেন। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর মতিঝিল, চট্টগ্রামের লোহাগাড়া, পটিয়া, সাতকানিয়া ও কোতোয়ালী থানায় মামলা রয়েছে।

কেএ

Link copied