সাংস্কৃতিক আয়োজনে যেন অপসংস্কৃতি না ঢোকে

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৩:০০ পিএম


সাংস্কৃতিক আয়োজনে যেন অপসংস্কৃতি না ঢোকে

যেকোনো ধরনের সাংস্কৃতিক আয়োজনে অপসংস্কৃতি যেন না ঢুকতে পারে সেদিকে খেয়াল রাখার আহ্বান জানিয়েছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় অধিবেশনে তিনি এ কথা বলেন।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে এরইমধ্যে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের চিঠি দিয়েছি। কোথাও কোনো কালচারাল আয়োজন করতে আগে থেকে অনুমতি নেওয়ার দরকার নেই। শুধু লক্ষ্য রাখতে হবে, সেই জায়গাতে যেন অপসংস্কৃতি না ঢোকে।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ রুখে দিতে সাংস্কৃতিক চর্চার কোনো বিকল্প নেই। একসময় আমাদের জারি গান, বাউল গান ও যাত্রা সবই চলতো। সেই জায়গাটিতেই আমরা ফিরে যেতে চাই। আমরা যেন সংস্কৃতি দিয়ে জঙ্গিবাদকে রুখে দিতে পারি।

তিনি আরও বলেন, দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। যেখানে একটি সিনেপ্লেক্স ও লাইব্রেরি থাকবে। সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণের ক্ষেত্রে প্রথমে আমরা ১০০ উপজেলা টার্গেট করে কাজ শুরু করব। এর মধ্যে ৩৫টি উপজেলার উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) প্রায় চূড়ান্ত।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, টাঙ্গাইলের যে ভাসানী হল আছে সেটির ডিপিপি প্রণয়ন প্রায় চূড়ান্ত। ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে আশা করছি তা হয়ে যাবে। এই ১০০ উপজেলার বাইরেও ৪৯২টি উপজেলাতেই আমাদের কার্যক্রম শুরু করতে চাচ্ছি। যেন সব জায়গায় সাংস্কৃতিক চর্চা বাড়ে।

কে এম খালিদ বলেন, আমাদের যে সাংস্কৃতিক সংস্থাগুলো আছে তাদেরকে আমরা উদ্বুদ্ধ করি ও প্রায় ১৪০০ সংগঠনকে বাৎসরিক অনুদান দেই। আবেদনের ভিত্তিতে আমরা এসব দিচ্ছি যেন আমাদের জেলা শিল্পকলা অ্যাকাডেমি সাংস্কৃতিক উন্নয়নে কাজে লাগতে পারে।

সেশনে জেলা প্রশাসকেরা সাতটি প্রশ্ন উত্থাপন করেন। যার পাঁচটিই ছিল সংস্কৃতি নিয়ে জানিয়ে তিনি বলেন, বিশেষ করে আমাদের প্রত্নতত্ত্ব জাদুঘর নিয়ে প্রশ্ন এসেছে। শিল্প-সাহিত্য-সংকৃতি-প্রত্নতত্ত্ব-কপিরাইট-বাংলা অ্যাকাডেমি সবকিছু নিয়েই আলোচনা হয়েছে। সেগুলো আমাদের প্রক্রিয়ার মধ্যে চলমান আছে।

বইমেলায় কয়েকটি প্রকাশনীর স্টল না পাওয়া নিয়ে বাংলা অ্যাকাডেমির সিদ্ধান্ত নিয়ে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলা অ্যাকাডেমির একটি নীতিমালা রয়েছে। সে অনুযায়ী যারা স্টল পাওয়ার পাবে। মত প্রকাশের অধিকার সবার আছে। কিন্তু এর মানে এই না যে কেউ আমাদের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, পতাকা নিয়ে কটাক্ষ করবে। এর বাইরে সবার মত প্রকাশের সর্বোচ্চ সুযোগ আছে।

এনআই/কেএ

Link copied