প্রেমের সংসার সাঙ্গ হলো ‘খুনে’

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৮ এএম


প্রেমের সংসার সাঙ্গ হলো ‘খুনে’

প্রতীকী ছবি।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের প্রেমতলা এলাকায় স্ত্রী যূথী সূত্রধরকে (২২) ছুরিকাঘাতে খুন করেছেন স্বামী অভি ধর (২৯)। খুনের পর নিজের পেটে ছুরি চালিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টাও করেছেন অভি।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) রাত পৌনে ৮টার দিকে সীতাকুণ্ডে এ ঘটনা  ঘটে। ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন কান্তি বণিক। 

নিহত যূথী সূত্রধরের বাবার বাড়ি সীতাকুণ্ড পৌরসভার প্রেমতলা এলাকায়। তার স্বামী অভি ধরের (২৮) বাড়ি বাঁশখালী উপজেলার জলদি গ্রামে। 

পুলিশ কর্মকর্তা সুমন কান্তি বনিক বলেন, আড়াই বছর আগে অভি ভালোবেসে বিয়ে করেন যূথীকে। তারা একসাথে অনেকদিন বসবাসও করেছেন। কিন্তু কয়েকমাস আগে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। একপর্যায়ে যূথী বাবার বাড়ি সীতাকুণ্ডে এসে বসবাস শুরু করেন।

তিনি বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় অভি শ্বশুরবাড়িতে এলে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে অভি স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত করেন। এ সময় অভি নিজেও নিজের পেটে ছুরিকাঘাত করেন। পরে স্থানীয়রা যূথীকে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আর অভিকে গুরুতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক।

এদিকে যূথীর পরিবার বলছে অভির সাথে যূথীর ডিভোর্স হয়ে গেছে। যূথী তালাক দিয়েছিলেন কি না- এই প্রশ্নের জবাবে পুলিশ কর্মকর্তা সুমন কান্তি বণিক বলেন, এ ধরনের কোনো কাগজ আমরা পাইনি। 

তিনি বলেন, সম্পর্কের অবনতি হওয়ার পরই অভি তার স্ত্রীকে মারধর করতেন। পরে যূথী বাবার বাড়িতে চলে আসেন। ঘটনার সময় যূথীর বাড়িতে কেউ ছিল না। সেই সুযোগেই অভি যূথীকে খুন করেছে বলে জানিয়েছেন সুমন কান্তি বণিক।

তিনি আরো বলেন, যূথীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

কেএম/এইচকে 

Link copied