ঢাকা কলেজ মাঠ যেন একখণ্ড ‘রেসকোর্স ময়দান’

Dhaka Post Desk

ঢাকা কলেজ প্রতিবেদক

২৬ নভেম্বর ২০২১, ১২:৪৮ পিএম


ঢাকা কলেজ মাঠ যেন একখণ্ড ‘রেসকোর্স ময়দান’

শুটিং সেট, মেকাপ, আর্টিস্ট, লাইট, ক্যামেরা আর অ্যাকশনের ঘোষণার পাল্টে গেছে ঢাকা কলেজের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠের চিত্র। ১৯৭১ সালের রেসকোর্স ময়দানে ঐতিহাসিক ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণের অংশটি এখানেই চিত্রায়ন করা হবে। এ যেন এখন একখণ্ড ‘রেসকোর্স ময়দান’।

এটি বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন চরিতের ওপর নির্মিত বায়োপিক ‘বঙ্গবন্ধু’র বিশেষ একটি অংশের চিত্রায়নের গল্প। শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) ঢাকা কলেজের খেলার মাঠ, পুকুর পাড়, হলমাঠ ঘুরে এমন কর্মযজ্ঞ চোখে পড়ে।

dhaka post

বিখ্যাত ভারতীয় পরিচালক শ্যাম বেনেগলের পরিচালনায় গত ২৩ নভেম্বর থেকে ঢাকা কলেজে চলছে ‘বঙ্গবন্ধু’ বায়োপিক চলচ্চিত্রের চিত্রায়ন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বায়োপিকে রেসকোর্স ময়দানে ৭ মার্চের ভাষণে উপস্থিতি জনতার চরিত্রে দেখা যাবে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের। তারা জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে অংশ নিচ্ছেন। এতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চরিত্রে আরিফিন শুভ ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের চরিত্রে অভিনয় করছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা।

dhaka post

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক এই বায়োপিকের চিত্রায়ন ঢাকা কলেজে হওয়ায় বেশ উচ্ছ্বাসিত প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক শিক্ষার্থীরাও।

জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে শুটিংয়ে অংশ নেওয়া ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থী তারেক আজিজ বলেন, ইতিহাসের অংশ হিসেবে নিজেকে জড়িয়ে খুব ভালো লাগছে। ঢাকা কলেজের মাঠে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অংশ বিশেষ চিত্রায়ন করা হচ্ছে যা আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের। আমিও ইতিহাসের অংশ হতে পেরেছি যা আমার জন্য সম্মানের।

dhaka post

ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই. কে. সেলিম উল্লাহ খোন্দকার বলেন, আবারও ইতিহাসের অংশ হলো ঢাকা কলেজ। বাংলাদেশ-ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজিত বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ চিত্রায়িত হচ্ছে ঢাকা কলেজের খেলার মাঠে। ১৯৭০ পর কালের বিখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগল ছবিটি পরিচালনা করছেন। শিক্ষক পরিষদ সম্পাদকসহ হল সুপাররা এ বিষয়ে সার্বক্ষণিক খেয়াল রাখছেন। আমরা অত্যন্ত গর্বিত।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি ভারতে বঙ্গবন্ধু বায়োপিকের শুটিং শুরু হয়। এতে সহযোগী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন দয়াল নিহালানি। চিত্রনাট্য লিখেছেন অতুল তিওয়ারি ও শামা জায়েদী। গত সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে শুটিংয়ের পরিকল্পনা থাকলেও করোনার কারণে তা পিছিয়ে নভেম্বরের শেষে শুরু হয়েছে। ২০২২ সালের মার্চ মাসে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে বায়োপিকটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

আরএইচটি/এমএইচএস

Link copied