অনলাইন চ্যাটিংয়ে আসক্ত : অতঃপর আত্মহত্যা

Dhaka Post Desk

ঢামেক প্রতিবেদক

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৪২ পিএম


অনলাইন চ্যাটিংয়ে আসক্ত : অতঃপর আত্মহত্যা

রাজধানীর উত্তরায় অনলাইন চ্যাটিংয়ে আসক্ত হয়ে ফারহান ইসলাম ফুয়াদ (১৪) নামে এক শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) সকালে এই ঘটনা ঘটে।

পরে তাকে উদ্ধার করে উত্তরার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ফুয়াদের মা শামীম আরা নীপা ঢাকা পোস্টকে বলেন, ৩ মাস হলো আমার স্বামী মারা গেছেন। আমার একমাত্র ছেলে উত্তরা মাইলস্টোন স্কুলের ইংরেজি ভার্সনে অষ্টম শ্রেণীতে পড়ত। ও সব সময় অনলাইনে আসক্ত থাকত। আজ সকালে সে সবার অগোচরে সাততলা ভবন থেকে লাফ দেয়।

তিনি আরও বলেন, অনলাইনে সে জাপানিদের সঙ্গে চ্যাট করত। তবে সেটা ফেসবুকে না, আমি তার মেসেজ দেখেছি। গতকাল চ্যাটিংয়ের সময় আমার ছেলে মারা যাবে বলে উল্লেখ করেছে। আমি ওই জাপানির সঙ্গে চ্যাট করেছি। তিনি আসলে মেয়ে না ছেলে সেটা জানতে পারিনি।

শামীম আরা নীপা বলেন, ফুয়াদ টয়লেটে ঢুকেও আধা ঘণ্টা থেকে পৌনে ১ ঘণ্টা চ্যাট করত। আমি এসব মেসেজ দেখে তার সঙ্গে জোর করে রাতে ঘুমিয়েছি। আজ ভোর ৫টায় সে এলার্ম দিয়ে উঠে টয়লেটে যাওয়ার কথা বলে ছাদ থেকে লাফ দেয়। দারোয়ান এসে আমাকে ডাকলে নিচে গিয়ে দেখি ও নিচে পড়ে আছে। ভবনের ডিসলাইন, ইন্টারনেট ও কারেন্টের তার ছিঁড়ে নিচে পড়ে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, মরদেহ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি উত্তরা পশ্চিম থানাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

এসএএ/ওএফ

Link copied