শাহবাগে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে ব্যবসায়ী, প্রতারক আটক

Dhaka Post Desk

ঢামেক প্রতিবেদক

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০১:৫১ এএম


শাহবাগে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে ব্যবসায়ী, প্রতারক আটক

রাজধানীর শাহবাগ থানার প্রেসক্লাবের বিপরীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন আব্দুল রাকিব (৪০) নামের এক ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় প্রতারক চক্রের সদস্য মো. ওসমানকে (৩৫) পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ওই ব্যবসায়ীকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম মাহমুদ ঢাকা পোস্টকে বলেন, প্রেসক্লাবের বিপরীতে তাকে অচেতন অবস্থায় পেঁপের দোকানে রেখে যায় অজ্ঞান পার্টি। ওই প্রতারক চক্রের একজন সদস্য তার পকেট থেকে টাকা বের করার সময় মানুষ ওসমান নামে প্রতারক চক্রের একজনকে ধরে ফেলে। ওই সদস্য ব্যবসায়ীর পকেটে থাকা ২৯ হাজার টাকা বের করে নিয়ে যাচ্ছিল। স্থানীয়রা ওই চক্রের সদস্যকে আমাদের কাছে সোপর্দ করেছে।

তিনি আরও বলেন, চক্রের সদস্য ওসমান আমাদের কাছে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে সে আচার খাইয়ে তাকে অজ্ঞান করে। আমরা তার কাছে মেডিসিন মেশানো আচার পেয়েছি। সে আরও জানায়, তার সঙ্গে তুহিন, চান মিয়া ও ওসামা নামের তিন জন জড়িত। অচেতন ওই ব্যক্তিকে পাকস্থলী ওয়াশ করতে মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়।

প্রতারক চক্রের খপ্পরে পড়া আব্দুর রাকিবের ছোট ভাই আলিম ঢাকা পোস্টকে বলেন, আমার ভাই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ব্যবসা করে। অজ্ঞান করে তার কাছে থাকা ২৯ হাজার টাকা নেওয়ার সময় প্রতারক চক্রের এক সদস্যকে মানুষ আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। আমার ভাইয়ের অবস্থা এখনও ভালো নয়। একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে।

অন্যদিকে মতিঝিল দৈনিক বাংলার মোড়ে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন মো. শাহিন (২২) নামে আরও এক যুবক। রাত পৌনে ৯টায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

উদ্ধার করে নিয়ে আসা সাদ্দাম হোসেন ঢাকা পোস্টকে বলেন, সে একটি রিকশায় ছিল। প্রতারক চক্র তাকে তসবি ও কলম দিয়ে অজ্ঞান করে বলে জানায় রিকশাচালক। আমরা ফুটপাতে দেখতে পেয়ে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশকে বিষয়টি জানাই। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল এ নিয়ে আসে। তাকে পাকস্থলী ওয়াশ দিয়ে মিটফোর্ড হাসপাতালে রেফার্ড করেন চিকিৎসক।

মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কৃষ্ণ দাস বৈরাগী ঢাকা পোস্টকে বলেন, আমরা ৯৯৯ এর মাধ্যমে খবর পেয়ে দৈনিক বাংলার ফুটপাত থেকে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসি। আমরা তার বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছি।

dhakapost

রোববার (১৬ জানুয়ারি) অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ানের (এপিবিএন) সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মীর আব্দুল হান্নান (৫৮)। পরে চিকিৎসক তাকে পাকস্থলী ওয়াশ দিয়ে মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠায়। পরে সেখানে রাত ১১টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

আব্দুল হান্নানের স্ত্রীর বড় ভাই আব্দুল মোমেন বাবলু বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা পোস্টকে বলেন, ছুটিতে সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া যেতে এয়ারপোর্ট থেকে গাবতলী এলাকায় যান হান্নান। প্রতারক চক্র তাকে অজ্ঞান করে সঙ্গে থাকা টাকা-পয়সা নিয়ে মোহাম্মদপুর বসিলা এলাকায় ফেলে যায়। দুপুর ২টার দিকে খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে আসি। তার পাকস্থলী ওয়াশ করা হয়েছে। রাতে মিটফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়।

এসএএ/এসএসএইচ

Link copied