ই-কমার্স খাতে ‘ইউবিআইডি’ চালু হচ্ছে ফেব্রুয়ারিতে

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ জানুয়ারি ২০২২, ০৪:১১ পিএম


ই-কমার্স খাতে ‘ইউবিআইডি’ চালু হচ্ছে ফেব্রুয়ারিতে

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ডিজিটাল কমার্স (ই-কমার্স) খাতে স্থিতিশীলতা আনতে আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে চালু হচ্ছে ইউনিক বিজনেস আইডি (ইউবিআইডি)। ই-কমার্স ব্যবসায়ীদের সবাইকে ইউবিআইডিতে নিবন্ধন করতে হবে। শুধুমাত্র ফেসবুকে যারা ব্যবসা করছেন তারাও এই নিবন্ধের আওতায় আসবেন।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন শেষ সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। ডিজিটাল কমার্স খাতে স্থিতিশীলতা আনতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং আইসিটি বিভাগের কারিগরি সহায়তায় নির্মীয়মাণ প্ল্যাটফর্ম উদ্যোগ গুলোর বর্তমান নির্মাণ অগ্রগতি পর্যালোচনা নিয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, নিবন্ধিত কোনো প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কারও অভিযোগ থাকলে অভিযোগ নিষ্পত্তির প্রক্রিয়া সেন্ট্রাল লজিস্টিক ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের (সিসিএমএস) মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা যাবে। এদিকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে লেনদেনের জন্য চালু হতে যাচ্ছে 'বিনিময়' নামে একটি অ্যাপ। এই অ্যাপটি ফেব্রুয়ারিতে চালু হবে। এই অ্যাপের মাধ্যমে বিকাশ থেকে নগদ, শিউর ক্যাশ থেকে উপায় বা যে কোনো মার্চেন্ট অ্যাকাউন্ট থেকে এমএফএস, ডিজিটাল ওয়ালেট থেকে যেকোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো যাবে। এটিও চালু হবে আগামী মার্চে। 

তিনি বলেন, গ্রাহকদের সুবিধার জন্য পরবর্তীতে সেন্ট্রাল লজিস্টিক ট্র্যাকিং প্লাটফর্ম (সিএলটিপি) চালু করা হবে। এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে গ্রাহক পণ্য কেনার পরে সেটি কখন কোন অবস্থায় আছে বা হাতে পেতে কত দিন লাগবে সেটি দেখতে পারবেন। তবে এটি নির্মাণের দায়িত্ব ডাক বিভাগের হাতে থাকায় তারা সময় মতো নির্মাণ করতে পারেনি। আগামী সাত দিনের মধ্যে ডাক বিভাগ এই কাজ শেষ না করতে পারলে এটি আমরা হাতে নিয়ে পরবর্তী ৬ মাসের মধ্যে নির্মাণ করব।

পলক বলেন, প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে শক্তিশালী প্ল্যাটফর্ম তৈরির মাধ্যমে ডিজিটাল ব্যবসায় যে আস্থাহীনতা, বিশ্বাসযোগ্যতা ও স্বচ্ছতার অভাব দেখা দিয়েছে তা দূরীভূত হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে প্রধানমন্ত্রীর যে প্রতিশ্রুতি ছিল সেটা আমরা সফলভাবে বাস্তবায়ন করতে পারছি। এখন আমাদের লক্ষ্য ২০৩১ সাল নাগাদ একটি উচ্চ মধ্যম আয়ের জাতি এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উদ্ভাবনী জাতি হিসেবে গড়ে উঠবো।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, এটুআই পলিসি অ্যাডভাইজর আনীর চৌধুরী, এটুআই টেকনিক্যাল হেড রেজওয়ানুল হক জামি, ই-ক্যাব পরিচালক জিয়া আশরাফ, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ই-কমার্স সেলের যুগ্ম-সচিব সাঈদ আলী প্রমুখ।

এমএইচএন/আইএসএইচ

Link copied