পাপুলের আসনে বিএনপির মনোনয়নে এগিয়ে আবুল খায়ের

Aditto Rimon

০৩ মার্চ ২০২১, ২২:৫৬

পাপুলের আসনে বিএনপির মনোনয়নে এগিয়ে আবুল খায়ের

আবুল খায়ের ভূঁইয়া

আগামী ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপনির্বাচন। এ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছেন দলটির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবুল খায়ের ভূঁইয়া।  

নির্বাচনে অংশ নেওয়ার প্রসঙ্গে আবুল খায়ের ভূঁইয়া ঢাকা পোস্টকে বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচন দল আমাকে মনোনয়ন দিয়েছিল। দল যদি নির্বাচনে অংশ নেয় তাহলে আমি প্রস্তুত আছি। আশা করি এবারও আমি মনোনয়ন পাবো।

তিনি বলেন, সরকার ও নির্বাচন কমিশন একজোট হয়ে নির্বাচনী ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিয়েছে। আমরা জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনার আন্দোলন করছি। লক্ষ্মীপুর-২ উপনির্বাচনে জনগণ পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারলে এবং সুষ্ঠু ভোট হলে ধানের শীষ বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়ী হবে। 

তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যে আমি নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছি। স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করছি। এ আসন থেকে আমি দুবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য। 

এ আসনে আবুল খায়ের ভূঁইয়া ছাড়াও বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী খালেদা জিয়ার সাবেক নিরাপত্তা কর্মকর্তা কর্নেল (অব.) আব্দুল মজিদ ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হারুণ।

এদিকে বিএনপি নেতারা বলছেন, গত কয়েক বছর ধরে উপনির্বাচন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন- সব জায়গায় চর দখলের মতো করে ভোট দখল করে নিয়েছে সরকার। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি দলের স্থায়ী কমিটির সভায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয়ভাবে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ফলে, লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপ নির্বাচনে দলের অংশ নেওয়ার সম্ভাবনা কম। আর যদি নির্বাচনে অংশ নেয় তাহলে তাহলে আবুল খায়েরের মনোনয়ন মোটামুটি নিশ্চিত। 

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, যেহেতু আমরা স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলগতভাবে অংশ নিচ্ছি না তাই উপনির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে দলের স্থায়ী কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে। তবে এ বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এ নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে। আর তাদের সহযোগিতায় সরকারের ভোট ডাকাতির বিষয়টি অনেক পুরাতন। এ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের আরেকবার ভাবতে হবে।  

তিনি বলেন, নির্বাচনে গেলে একাদশ সংসদ নির্বাচনে যিনি এ আসনে মনোনয়ন পেয়েছিলেন, তারই মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে, এখনও প্রার্থীর বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। 

গত ২২ ফেব্রুয়ারি নৈতিক স্খলনজনিত ফৌজদারি অপরাধে চার বছর সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত হওয়ায় লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের পদ বাতিল করে সংসদ সচিবালয়। 

এএইচআর/আরএইচ

Link copied