বিকেলে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণে যাবেন চিকিৎসকরা

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৫ এপ্রিল ২০২১, ১৩:৪৪

বিকেলে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণে যাবেন চিকিৎসকরা

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া/ ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে যাবেন তার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকরা। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেল চারটার দিকে গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় তাকে দেখতে যাওয়ার কথা রয়েছে চিকৎসকদের।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ড. এফ এম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে দুই সদস্যের প্রতিনিধি ডা. এ জেড এম জাহিদ ও ড. মামুন দেখতে যাবেন। তাদের সঙ্গে অনলাইনে যুক্ত থাকবেন খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া ইউংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান ঢাকা পোস্টকে বলেন, বিকেল চারটা থেকে সাড়ে চারটার মধ্যে ম্যাডামের ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা দেখতে যাবেন।

চিকৎসকদের সূত্রে জানা গেছে, খালেদা জিয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পাঁচদিন অতিবাহিত হয়েছে। এই সময়ে তার শারীরিক অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়নি। অর্থাৎ করোনাভাইরাসের যেসব উপসর্গ, তা দেখা দেয়নি। এছাড়া তার রক্তের যে বায়োকেমিক্যাল টেস্ট করা হয়েছে তার ফলাফল ভালো। সবগুলো বিষয় নিয়ে মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকরা অনলাইনে বুধবার (১৪ এপ্রিল) রাতে মিটিংয়ে বসেন। সেখানে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার একটি গাইডলাইন তৈরি করা হয়। সে অনুযায়ী পরবর্তী চিকিৎসা চলবে।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসক ড. মামুন বলেন, ম্যাডামের অবস্থা ভালো। তার শরীরে করোনার উপসর্গ নেই। রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টও ভালো এসেছে। গতকাল (বুধবার) রাতে মেডিকেল বোর্ডের মিটিং হয়েছে। সেখানে আমাদের পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হয়েছে। আজ বিকেলে মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকরা তাকে দেখতে যাবেন।

খালেদা জিয়ার পরিবার সূত্র বলছে, তার শরীরে করোনার উপসর্গ না থাকলেও আগের রোগগুলো বিদ্যমান রয়েছে। আর্থ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, হাঁটুর জটিলতা কারণে এখনও তিনি অন্যের সাহায্য ছাড়া হাঁটা-চলা করতে পারেন না। তাই এখন সবার মধ্যে একটা ভয়, করোনার কারণে আগের রোগগুলো থেকে যদি অন্য কিছু ঘটে যায়। এজন্য খুব সতর্ক অবস্থান থেকে তার শারীরিক অবস্থা নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলাম বলেন, আমি তো গত কয়েকদিন তাকে দেখতে যাইনি। আর এখন তো করোনার কারণে চিকিৎসকদের বাইরে কারোরই তার বাড়িতে যাওয়ার অনুমতি নেই। আমরা টেলিফোনে তার খোঁজ নিচ্ছি। চিকিৎসকরা তো বলেছেন, তিনি ভালো আছেন। আমরাও খোঁজ নিয়ে জেনেছি, তিনি ভালো আছেন।

রোববার (১১ এপ্রিল) খালেদা জিয়া করোনায় আক্রান্তের খবর ছড়িয়ে পড়ে। তখন বিষয়টি দল ও পরিবারের পক্ষ থেকে স্বীকার করা হয়নি। পরে বিকেলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জরুরি সংবাদ সম্মেলন করে খালেদা জিয়া করোনা আক্রান্ত বলে জানান। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার অবস্থা স্থিতিশীল। তিনি ভালো আছেন।

এএইচআর/এসএসএইচ

Link copied