সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে গড়িমসি করছে

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৬ নভেম্বর ২০২১, ০৪:০৮ পিএম


সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে গড়িমসি করছে

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, বাংলাদেশের লাখ লাখ মানুষ খালেদা জিয়ার মুক্তি চায়। কিন্তু সরকার চায় না। কারণ, সরকার তাকে ঘোর বিরোধী মনে করেন। তাই সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে নানা গড়িমসি করছে।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি আয়োজিত মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকীর এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, বেগম জিয়াকে মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। স্বাভাবিকভাবে একটা মামলায় যদি সাজা দেওয়া হয়, হাইকোর্ট সে মামলা থেকে আরেকটু সহানুভূতিশীল হয়ে সাজা কমিয়ে দেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো, বেগম জিয়াকে হাইকোর্ট নিজেই ৫ বছর বাড়িয়ে দিয়েছেন। হত্যা মামলার আসামি বিদেশ গিয়ে বসে থাকে, অথচ বেগম জিয়াকে চিকিৎসাও করতে দেওয়া হবে না। 

আলোচনায় নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এই সরকারের কাছে আমাদের কোনো প্রত্যাশা নেই। বর্তমান সরকার তো দরিদ্র মানুষের জন্য কিছু করবে না, মুখে শুধুমাত্র নানা ধরনের উন্নয়নের কথা বলে। কোন ধরনের উন্নয়ন? বাংলাদেশ একমাত্র দেশ যেখানে ফ্লাইওভারে সিগনাল আছে। এই হলো আমাদের উন্নয়নের সড়ক। 

তিনি বলেন, ভারত টিকা না দেওয়াতে এই দুয়ার, ওই দুয়ার ঘুরে বেড়িয়েছেন আর দেড় বছরের মাথায় আমাদের গল্প শোনান টিকা রফতানি করতে পারবো।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে তিনি বলেন, বেগম জিয়া হাসপাতালের সিসিইউতে আছেন। তার চিকিৎসা ঠিক মতো হচ্ছে কিনা, আমরা জানি না। অবাক লাগে, তাকে বিদেশেও নিতে দেবে না। দেশের একজন তিনবারের প্রধানমন্ত্রীকে চিকিৎসা করতে দেওয়া হবে না, এটা ভাবতেই তো কষ্ট লাগে। অথচ এই বোধশক্তি সরকারের নেই।

আলোচনায় আরও উপস্থিত ছিলেন ন্যাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান এড. মো. আজহারুল ইসলাম প্রমুখ।

এমএইচএন/আইএসএইচ

Link copied