প্রথম ব্রিটিশ বাংলাদেশি হিসেবে আকি রহমানের এভারেস্ট জয়

Dhaka Post Desk

মাহবুব আলী খানশূর, যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি

১৩ মে ২০২২, ০৫:৩৫ পিএম


প্রথম ব্রিটিশ বাংলাদেশি হিসেবে আকি রহমানের এভারেস্ট জয়

ব্রিটিশ বাংলাদেশি ব্যবসায়ী আকি রহমান। ব্যবসায়ী হলেও নেশা তার পর্বতচূড়ায় আরোহণ করা। একবারে পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গে ওঠার চেষ্টা না করে প্রথমে আরোহণ করেন বড় বড় পর্বতগুলোতে। প্রথম জয় করেন আফ্রিকার সবচেয়ে উঁচু পর্বত মাউন্ট কিলিমানজারো, ফ্রান্সের সবচেয়ে উঁচু পর্বত মন্ট ব্লাংক, ইউরোপের মাউন্ট এলব্রস ও নেপালের আমাদা ব্ল্যাম। আর এবার জয় করলেন পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট। তিনিই প্রথম ব্রিটিশ বাংলাদেশি ও ব্রিটিশ মুসলিম, যিনি মাউন্ট এভারেস্টে আরোহণ করার গৌরব অর্জন করেছেন।

৩৯ বছর বয়সী আখলাকুর রহমান ওরফে আকি রহমান বাস করেন নর্থ ইংল্যান্ডের ওল্ডহ্যাম এলাকায়। তিনিই প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক যিনি পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে আরোহণ করার গৌরব অর্জন করলেন। কষ্টসাধ্য এই কাজ তিনি শুরু করেন এ বছরের ১২ রমজান থেকে। মুসলিম হওয়ায় রোজা রেখেই তিনি পর্বতচূড়ায় ওঠা শুরু করেন। দীর্ঘ এক মাস কঠোর সাধনার পর জয় করেন পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গে ওঠার গৌরব। তার এ কাজে সহায়তা করে প্রথম ব্রিটিশ বাংলাদেশি টিভি চ্যানেল এস। অনেকেই এভারেস্টের বিভিন্ন বেজ-ক্যাম্পে গেলেও এখন পর্যন্ত এভারেস্টের চূড়ায় কোনো ব্রিটিশ মুসলিম বা ব্রিটিশ বাংলাদেশি পায়ে হেঁটে যাননি।

তিন সন্তানে জনক আকি রহমানের জন্ম সিলেটের সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের বাউধরন গ্রামে। ব্রিটেন প্রবাসী মৃত হাজি ইছকন্দর আলীর ছেলে তিনি। মাত্র দেড় বছর বয়সে পরিবারের সঙ্গে পাড়ি দেন যুক্তরাজ্যে। তার শৈশব কেটেছে ইংল্যান্ডের ওল্ডহ্যাম শহরে। পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে আকি রহমান সবার বড়। মা, স্ত্রী হেনা রহমান ও পরিবারের লোকজনের উৎসাহে আকি এবার এভারেস্ট জয়ের পথে যাত্রা করেন।

আকি রহমান প্রথম ব্রিটিশ মুসলিম হিসেবে এভারেস্ট জয় করলেন। আজ (১৩ মে) নেপালের সময় সকাল সাড়ে ৭টায় তিনি পর্বতচূড়ায় পৌঁছান। নেপাল থেকে শেরপারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন লন্ডনের চ্যানেল এস টেলিভিশনের হেড অব প্রোগ্রাম ফারহান মাসুদ খানকে। পবিত্র রমজান মাসে আকি এভারেস্ট জয়ের যাত্রা শুরু করেন। ১১ এপ্রিল ওল্ডহ্যাম থেকে যাত্রা শুরু করলেও এভারেস্টে উঠা শুরু করেন ১৩ এপ্রিল।

এর আগে আকি রহমান এক এক করে ছোট-বড় বেশ কয়েকটি পর্বতশৃঙ্গে আরোহণ করে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। ২০২০ সালের জুলাই মাসে আফ্রিকার সবচেয়ে উঁচু পর্বত তানজিনিয়ার মাউন্ট কিলিমানজারো জয় করে প্রথম সাফল্য অর্জন করেন। যার উচ্চতা ৫ হাজার ৮৯৫ মিটার। এরপর ৪ হাজার ৮১০ মিটার উচ্চতা সম্পন্ন ফ্রান্সের সবচেয়ে উঁচু পর্বত মন্ট ব্লাংকে আরোহণ করেন। একই বছরের অক্টোবরে তৃতীয়বার ২৪ ঘণ্টায় জয়ের চ্যালেঞ্জ নিয়ে ৫৬৪২ মিটারের উচ্চতা রাশিয়া ও ইউরোপের মধ্যে সবচেয়ে উঁচু পর্বত মাউন্ট এলব্রস মাত্র ৮ ঘণ্টায় আরোহণ করে বিজয়ী হন। এর পাশাপাশি রাশিয়ার কারবাদিনো-বলকারিয়াও জয় করেন আকি রহমান। এরপর ২০২১ সালে নেপালে অবস্থিত পৃথিবীর সবচেয়ে কঠিনতম পর্বত হিমালয় আমাদা ব্ল্যাম জয় করেন তিনি। যার উচ্চতা ৬ হাজার ৮৫৬ মিটার।

উল্লেখ্য, ব্রিটেনের টিভি চ্যানেল এস’র আরএফসি চ্যারিটির মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে রিফিউজিদের সাহায্যে কয়েক শত হাজার পাউন্ড অর্থ সংগ্রহ করেন আকি রহমান।

এসএসএইচ

Link copied