লন্ডন ও বার্মিংহামে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ

Dhaka Post Desk

মাহবুব আলী খানশূর, যুক্তরাজ্য

১৯ মে ২০২২, ০৭:৪২ এএম


লন্ডন ও বার্মিংহামে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ

বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচকে ব্রিটেনে বাংলাদেশিদের মধ্যে পরিচিত করতে ও বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে ব্রিটিশ বাংলাদেশিদের সঙ্গে আরো সম্পৃক্ত করতে এ বছর লন্ডনে দুটি এবং বার্মিংহামে একটি নৌকা বাইচের আয়োজন করা হয়েছে।

আগামী ২১ আগস্ট ইটনের ডর্নি লেইকে একটি এবং ডকল্যান্ডের রিগেট্টা সেন্টরে আরেকটি নৌকা বাইচের আয়োজন করেছে দুটি ভিন্ন সংগঠন। এছাড়া আগামী ২৪ জুলাই মধ্য ইংল্যান্ডের বার্মিংহামের এগবাস্টন রিজার্ভরে নৌকা বাইচের আয়োজন করেছে স্থানীয় নৌকা বাইচ কমিউনিটি ইন্টারেস্ট কোম্পানি। 

রাজধানী লন্ডনে ১২তম ন্যাশনাল নৌকা বাইচের আয়োজন করেছে আয়োজক মোহাম্মদ আবদুল আজিজ ও তার সহকর্মীরা। এবারের প্রতিযোগিতার জন্য ভেন্যু হিসেবে বাছাই করা হয়েছে বিশ্বখ্যাত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইটনের কোলঘেষা ডর্নি লেইক। এ লেকে অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকের নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা। ভেন্যুর ধারণক্ষমতা প্রায় সাত হাজার বলে জানা গেছে। গত ৭ মে ইটনের ডর্নি লেইকে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নৌকা বাইচের পরিবর্তিত তারিখ ঘোষণার পাশাপাশি এবারের আয়োজনের বিস্তারিত তুলে ধরেন আয়োজক মোহাম্মদ আবদুল আজিজ।

পুরো আয়োজনটি ব্রিটেনের রানীর সিংহাসনে আরোহণের প্লাটিনাম জুবিলিকে উৎসর্গ করা হবে। আর একই সঙ্গে এই আয়োজনের মাধ্যমে উদযাপন করা হবে ব্রিটেন-বাংলাদেশের বন্ধুত্বের সুবর্ণজয়ন্তী। তাই এবারের আয়োজনকে নানাভাবে বর্ণাঢ্য করে তুলতে ব্যস্ত রয়েছেন আয়োজকরা।

বাংলাদেশের একসময়ের কোচ ক্রিকেট কিংবদন্তী স্যার গর্ডন গ্রীনিজ, ব্রিটেনের হাউজ অব লর্ডসের সদস্য পলা মঞ্জিলা উদ্দিন এবং বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সাবেক ব্রিটিশ কূটনীতিক আনোয়ার চৌধুরী এবারের নৌকা বাইচ আয়োজনের সম্মানিত অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করছেন। এছাড়া এবারের আয়োজনের পেট্রন হিসেবে রয়েছেন যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম। তারা নিজ নিজ পরিসরে এবারের প্রতিযোগিতার বিষয়ে জনসচেতনতা তৈরিতে কাজ করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এবারের আয়োজনে মোট ১৮টি দল নেওয়া হবে। একসঙ্গে ছয়টি করে নৌকা প্রতিযোগিতায় নামবে। চ্যাম্পিয়ন দলকে দেওয়া হবে পাঁচ হাজার পাউন্ড, সঙ্গে রয়েছে সোনার মেডেল এবং ১৮ ক্যারেটের সোনায় মোড়ানো ট্রফি।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে কমিউনিটির বিভিন্ন সংগঠনের প্রতি আহ্বান জানান। উল্লেখ্য, কোনো প্রবেশ ফি ছাড়াই দর্শকরা এবারের ন্যাশনাল নৌকা বাইচ উৎসব উপভোগ করতে পারবেন।

এদিকে আগামী ২১ আগস্ট তিনটি চ্যারিটি সংগঠনের আয়োজনে লন্ডনের সিটি এয়ারপোর্টের কাছে রিগেট্টা সেন্টারে আরেকটি নৌকা বাইচের আয়োজন করেছে চ্যারিটি বোট রেইস নামে একটি সংগঠন। সংগঠনের সিইও রশিদ আলী জানান, গিফট অব নলেজ, সিস্টার্স ফোরাম এবং নিউহ্যাম ইয়ুথ লিংক নামে তিনটি চ্যারিটি সংগঠনের যৌথ সহায়তায় ওই নৌকা বাইচের আয়োজন করা হচ্ছে। নৌকা বাইচের মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থ বাংলাদেশে আর্তমানবতার সেবায় ব্যয় করা হবে।

বার্মিংহামে অনুষ্ঠিতব্য নৌকা বাইচ

মধ্য ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে ৬ষ্ঠ বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নৌকা বাইচ অনুষ্ঠান। আগামী ২৪ জুলাই সেখানকার এগবাস্টন রিজার্ভরে নৌকা বাইচের আয়োজন করেছে স্থানীয় নৌকা বাইচ কমিউনিটি ইন্টারেস্ট কোম্পানি। এ উপলক্ষে গত ২১ মার্চ বার্মিংহামের ক্রাউন ব্যাংকুইটিং হলে গালা ডিনারের মাধ্যমে নৌকা বাইচ অনুষ্ঠানের ঘোষণা দিয়েছে আয়োজন কমিটি। এছাড়া অনুষ্ঠানে নৌকা বাইচের থিম সং প্রকাশ করা হয়। এবারের থিম সংয়ে সুর দিয়েছেন বাংলাদেশের শিল্পী শিখ দিনার এবং নতুন ব্র্যান্ড গ্রুপ চারকোনের লোকমানসহ অতিথি শিল্পীরা।

সেহেল আহমেদের পরিচালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বহুজাতিক সমাজে নৌকা বাইচের গুরুত্ব সম্পর্কে বক্তব্য তুলে ধরেন কমনওয়েল্থ গেমসের সিইও আয়ান ফিল্ড, রিভাল ট্রাস্টের সিইও রিচার্ড পেরী, ট্রান্সফর্মিং ন্যারেটিভের সফিনা জাগত, বশির আহমেদ এমবিই এবং আরো অনেকে।

২০১৫ সালে শুরু হওয়া বার্মিংহামের ওই নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা ২০২১ সালে করোনা মহামারির কারণে বন্ধ থাকলেও এবার আবার আড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হতে যাচ্ছে। আয়োজক কমিটির চেয়ারপারসন আব্দুল কুদ্দুস রাজু জানান, আবহমান বাংলার কৃষ্টি ও সংস্কৃতি ব্রিটিশ বাংলাদেশিদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে তাদের এই আয়োজন। এই অনুষ্ঠানে শুধু নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা হবে না, সেখানে থাকবে বাংলাদেশের দেশাত্মবোধক গান। ছোট-ছেলে মেয়েদের জন্য থাকবে বাংলাদেশের বিভিন্ন আঞ্চলিক খেলাধুলার আয়োজন।

এসএসএইচ

Link copied