করোনা মহামারিকে বিদায় জানালো পর্তুগাল

Dhaka Post Desk

ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল প্রতিনিধি

০২ অক্টোবর ২০২২, ০৮:১০ এএম


করোনা মহামারিকে বিদায় জানালো পর্তুগাল

পর্তুগাল সরকার করোনা মহামারিতে জারিকৃত সব ধরনের সরকারি ডিক্রি বাতিল করেছে। অর্থাৎ করোনা মহামারিতে সুরক্ষা পরিস্থিতি বজায় রাখার জন্য আইন আকারে জারিকৃত সব ধরনের বিধিনিষেধ বাতিল করেছে সরকার। গত ৩০ সেপ্টেম্বর দেশজুড়ে বিশেষ সতর্কতা পরিস্থিতি শেষ দিন ছিল। এর মাধ্যমে দেশটি ২০২০ সালের মার্চের পর চলতি বছরের ১ অক্টোবর একটি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসল।

বর্তমানে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ অন্য সাধারণ রোগের মতই দেখছে পর্তুগালের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ফলে ইতিপূর্বের করোনা আক্রান্ত হলে স্বাস্থ্য সেবা নম্বরে যোগাযোগ করা এবং বাধ্যতামূলকভাবে সরকারি খরচে একটি (পিসি আর) টেস্ট করার সিদ্ধান্ত বাতিল করাসহ সংক্রমিত ব্যক্তির ৬ দিন আইসোলেশনের থাকার বিধি নিষেধ স্থগিত করা হয়েছে। পর্তুগাল ভ্রমণেও কোনো ধরনের বিধিনিষেধ নেই বা করোনা টেস্টের প্রয়োজন নেই।

নবনিযুক্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যানুয়াল পিজারো জানিয়েছেন, পর্তুগালে করোনা রোগ প্রতিরোধে উচ্চস্তরের সুরক্ষা পদ্ধতি বিরাজ করছে অর্থাৎ দেশটির প্রায় ৯৬ শতাংশ নাগরিকই টিকার আওতায় রয়েছেন। তাছাড়া বর্তমানে পরিচালিত করোনাভাইরাসের যে স্ট্রেন রয়েছে তা খুবই কম আক্রমণাত্মক এবং দেশটির স্বাস্থ্য সুরক্ষা পদ্ধতি তা নিয়ন্ত্রণে সক্ষম।

গত সেপ্টেম্বর মাসে ২০২২-২৩ বছরের শিক্ষা কার্যক্রম থেকেও সব ধরনের করোনা বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হয়েছে। 
একই সঙ্গে করোনা সংক্রমণ থেকে বেঁচে থাকার জন্য মোবাইল সুরক্ষা অ্যাপটিও সকল অ্যাপ স্টোর থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে।

যদিও গত আগস্ট মাসে হাসপাতাল এবং বৃদ্ধাশ্রম বাদে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট এবং অন্য সকল পাবলিক স্থানে মাস্ক ব্যবহার এবং জনসংখ্যার ঘনত্বের লিমিট শিথিল করা হয়েছিল। শুধুমাত্র হাসপাতাল এবং বৃদ্ধাশ্রমে ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য নিরাপত্তার জন্য মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। 

Link copied