নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কাউন্সিলওম্যান প্রার্থী গ্রেফতার

Dhaka Post Desk

প্রবাস ডেস্ক

২৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫৩ পিএম


নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কাউন্সিলওম্যান প্রার্থী গ্রেফতার

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটিতে বাংলাদেশি কাউন্সিলওম্যান প্রার্থী শাহানা হানিফসহ তিন রাজনৈতিক কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্থানীয় সময় সোমবার (২৫ অক্টোবর) সিটি হলের বাইরের সড়ক অবরোধ করে ট্যাক্সি চালকদের ঋণ বেলআউট পরিকল্পনার প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নিয়েছিলেন তারা।

ব্রডওয়েতে ক্ষুব্ধ ট্যাক্সি চালকদের সমাবেশে কফে থাপ্পড় মারার অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন ট্যাক্সি চালকও গ্রেফতার হন।

গ্রেফতার রাজনৈতিক কর্মীদের মধ্যে রয়েছেন- ব্রুকলিন কাউন্সিলম্যান কার্লোস মেনচাকা, ম্যানহাটনের অ্যাসেম্বলিম্যান হার্ভে এপস্টেইন এবং সিটির ৩৯ ডিসট্রিক্টের কাউন্সিলর প্রার্থী শাহানা হানিফ। তবে নিউ ইয়র্ক পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে গ্রেফতারের বিষয়টি প্রকাশ করেনি।

মেনচাকার ডেপুটি চিফ অব স্টাফ সেজার ভার্গাস বলেন, ক্ষুব্ধ ট্যাক্সি চালকদের উত্তেজনাপূর্ণ সমাবেশটি ব্রডওয়েতে ছড়িয়ে পড়ে। সমাবেশের সময় কফের মধ্যে থাপ্পড় মারা হয়। ট্যাক্সি মেডেলিয়নের ঋণের দায়ে অনেকেই আত্মহত্যা করেছেন বলে সমাবেশ থেকে দাবি করা হয়। তবে তাদের এ দাবি মিথ্যা বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

উত্থাপিত দাবিগুলো অগ্রহণযোগ্য বলে উল্লেখ করেন সেজার ভার্গাস।

সাত মাস আগে ঋণে থাকা ট্যাক্সি মেডেলিয়ন মালিকদের জন্য ৬৫ মিলিয়ন ডলারের ত্রাণ তহবিল ঘোষণা করেছিলেন স্থানীয় মেয়র ডি ব্লাসিও। উবার এবং লিফটের মতো রাইড শেয়ার কোম্পানিগুলো বিভিন্ন শহরের পরিবহন ব্যবসার মডেল পরিবর্তন করার পরও ট্যাক্সি মেডেলিয়নের মূল্য বৃদ্ধি নিউ ইয়র্কে বেশ আলোচিত হয়েছে। প্রোগ্রামটি ঋণ পুনর্গঠন এবং ঋণে থাকা ক্যাব চালকদের জন্য পেমেন্ট আরও সাশ্রয়ী করতে ডিজাইন করা হয়েছে।

তবে চালকরা বলেছেন, বেলআউট যথেষ্ট নয়। ব্রুকলিনের ট্যাক্সি চালক ডরোথি লেকন্টে বলেন, ৩৫ বছর ধরে একটি ক্যাব চালাচ্ছি। বর্তমানে আমার ৫ লাখ ৯১ হাজার ডলারের ঋণ আছে। এই ইন্ডাস্ট্রিতে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন। আমরা এখন আর তরুণ নই, অবসরে চলে যাচ্ছি। মেয়র ডি ব্লাসিও বলেছিলেন যে তিনি চালকদের প্রতি সহানুভূতিশীল হবেন। কিন্তু তারা একটি কঠিন পরিস্থিতিতে রয়েছেন।

এমএইচএস

Link copied