বাংলাদেশিকে উপহাস করে ক্ষমা চাইলেন সেই মার্কিন বিচারক

Dhaka Post Desk

প্রবাস ডেস্ক

২৫ জানুয়ারি ২০২২, ০১:৩০ পিএম


বাংলাদেশিকে উপহাস করে ক্ষমা চাইলেন সেই মার্কিন বিচারক

ক্যানসারে আক্রান্ত বুরহান চৌধুরী নামে এক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিককে উপহাস করার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের ৩১তম জেলা জজ অ্যালেক্সিস জি. ক্রোট ক্ষমা চেয়েছেন। এই ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘আমি একটি ভুল করেছি’।

তিনি বলেন, ‘আমি নির্দয় আচরণ করেছি। যা করেছি তার জন্যে আমি লজ্জিত, দুঃখিত এবং বিব্রত। আমি ওই ব্যক্তির কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের কাছ থেকে নাগরিকরা যে উচ্চ মানগুলো আশা করে, তা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছি বলে মনে করি।’

গত ১০ জানুয়ারি বুরহান চৌধুরীকে (৭২) নিয়ে উপহাস করার পর ছুটিতে গিয়েছিলেন জজ অ্যালেক্সিস জি. ক্রোট। মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) ফিরে এসে তিনি নিজের ভুল স্বীকার করেন এবং ক্ষমা চান।

মিশিগানের হ্যামট্রাম্যাকের বাসিন্দা বুরহান চৌধুরীর বাড়ির উঠোনের ঘাস বড় হয়ে জঙ্গলের চেহারা পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন প্রতিবেশীরা।

এ বিষয়ে ভার্চুয়াল শুনানিতে বিচারক আলেক্সিস জি ক্রোট বলেছিলেন, ‘আপনার নিজের জন্য লজ্জিত হওয়া উচিত। যদি আমি এ বিষয়ে আপনাকে জেলে দিতে পারতাম, আমি দিতাম। আপনাকে এটি পরিষ্কার করতে হবে। এটি একেবারেই অনুচিত।’

বোরহান চৌধুরী তার শারীরিক অবস্থার কথা তুলে ধরে ঘাস কাটতে না পারার কারণ ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেছিলেন।

কিন্তু বিচারক তার কথা আমলে না নিয়ে বলেন, ‘জেল দেওয়ার সুযোগ থাকলে আমি আপনাকে তাই দিতাম।’

গত সপ্তাহে যখন ক্ষুব্ধ বিচারক বুরহান চৌধুরীকে ১০০ ডলার জরিমানা দেওয়ার নির্দেশ দেন, তখন ওই কার্যক্রমের ফুটেজ ভাইরাল হয়। তার ছেলে শিব্বির (৩৩) বাবার জরিমানার অর্থ পরিশোধ করেছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে বিচারক অ্যালেক্সিস জি ক্রোটকে বেঞ্চ থেকে বহিষ্কারের দাবিতে ২ লাখ ৩০ হাজারেও বেশি লোক একটি অনলাইন পিটিশনে স্বাক্ষর করেন। এরপরই তিনি আকস্মিকভাবে ক্ষমা চাইলেন।

এমএইচএস

Link copied