ইমামের সঙ্গে শুধু ১ রাকাত নামাজ পেলে যা করবেন

Dhaka Post Desk

ধর্ম ডেস্ক

২২ মার্চ ২০২৩, ০৪:০৫ পিএম


ইমামের সঙ্গে শুধু ১ রাকাত নামাজ পেলে যা করবেন

প্রতীকী ছবি

শুরু থেকে ইমামের সঙ্গে জামাতে শরিক হতে না পারা ব্যক্তি মাসবুক বলা হয়। মাসবুকের করণীয় হলো ইমাম নামাজের শেষ বৈঠকে সালাম ফিরানোর পর তিনি দাঁড়িয়ে নিজের নামাজ পূর্ণ করবেন। 

কোনও মাসবুক ব্যক্তি যদি চার রাকাত বিশিষ্ট নামাজে ইমামের সঙ্গে শুধু এক রাকাত নামাজ পায় তাহলে তার বাকি নামাজ পড়ার নিয়ম হলো-

 ইমামের দুদিকে সালাম ফিরানোর পর ওই মাসবুক ব্যক্তি দাঁড়িয়ে বাকি তিন রাকাত আদায় করবে। প্রথম রাকাতে ছানা, সূরা ফাতেহা পড়বে এবং সূরা মিলাবে। এরপর বসে তাশাহহুদ পড়বে। অতঃপর দাঁড়িয়ে অবশিষ্ট দুই রাকাত পড়বে।

এই দুই রাকাত পড়ার সময় প্রথম রাকাতে সূরা ফাতেহা এবং অন্য সূরা মিলিয়ে পড়বে। আর শেষ রাকাতে শুধু সূরা ফাতেহা পড়বে।

أن مسروقا ، وجندبا ، دخلا في صلاة الإمام في المغرب فأدركا معه ركعة وسبقا بركعتين فصليا معه ركعة ، ثم قاما يقضيان ، فأما مسروق فجلس في الركعة الأولى التي قضى ، وأما جندب ، فقام في الأولى ، وجلس في الثانية فلما انصرفا ، أقبل كل واحد منهما على صاحبه ، ثم إنهما تساوقا إلى عبد الله بن مسعود رضي الله عنه فقصا عليه القصة ، فقال : « كلاكما قد أحسن ، وأن أصلي كما صلى مسروق أحب إلي

‘একবার মাসরুক ও জুনদুব (রহ.) মাগরিবের নামাজে প্রবেশ করে ইমামের সাথে এক রাকাত পেলেন। তার সাথে এক রাকাত পড়ে বাকি দুই রাকাত পৃথকভাবে পড়লেন। মাসরুক প্রথম রাকাতে বসলেন। আর জুনদুব প্রথম রাকাতে দাঁড়িয়ে দ্বিতীয় রাকাতে বসলেন। 

তারা দুজনই পরবর্তীতে আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা.) এর কাছে গিয়ে নামাজের কথা বললে তিনি বলেন, দুজনই ঠিক করেছ। তবে মাসরুক যেভাবে পড়েছে আমার নিকট সেভাবে পড়াটা উত্তম।’ (কিতাবুল আসার, ইমাম মুহাম্মদ ১/১৯২, ফাতহুল কাদির ১/৩৪০, আদ্দুররুল মুখতার ২/৩৪৬)

Link copied