যে টিকা নিলে ওমরাহ ও হজে যাওয়া যাবে

Dhaka Post Desk

ধর্ম ডেস্ক

১০ আগস্ট ২০২১, ০৪:১১ পিএম


যে টিকা নিলে ওমরাহ ও হজে যাওয়া যাবে

পবিত্র কাবা শরিফের সামনে তাওয়াফরত হজ-ওমরাহযাত্রীরা। ছবি : সংগৃহীত।

চলতি মাসের ১০ আগস্ট (১ মহররম) থেকে বাইরের দেশের মুসল্লিদের ওমরাহ পালনে অনুমতি দিয়েছে সৌদি সরকার। 

সৌদি হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ১৮ বছর বা তার বেশি বয়স্করা কেবল ওমরার অনুমতি পাবেন। স্থানীয়দের মধ্যে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী যারা দুই ডোজ টিকা নিয়েছে, তাদেরও ওমরাহ আদায়ের সুযোগ ‍থাকবে।

মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) আরব নিউজে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এতথ্য জানা গেছে।

ওমরাহ পালনের জন্য যে টিকা নিতে হবে

ওমরাহ পালনে আগ্রহীদের বাধ্যতামূলকভাবে সৌদি সরকার অনুমোদিত করোনার টিকা সমূহের যে কোন একটির উভয় ডোজ গ্রহণ সম্পন্ন করতে হবে। টিকাগুলো হলো- এক. ফাইজার বায়োন্টেক। দুই. মডার্না। তিন. অ্যাস্ট্রাজেনেকা। চার. জনসন অ্যান্ড জনসন।

তবে যারা চীনের তৈরি টিকার উভয় ডোজ নিয়েছেন, ওমরাহ পালনে সৌদি আরবে যেতে তাদের ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার বাড়তি বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে হবে।

আরও পড়ুন : কাবা শরিফ দেখলে কি হজ ফরজ হয়ে যায়?

সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সৌদি আরব এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিম জনগোষ্ঠী, যারা চলতি বছর ওমরাহ পালনে ইচ্ছুক, তাদের আবেদনপত্রের সঙ্গে অবশ্যই টিকার সনদপত্রের অনুলিপি সংযুক্ত করতে হবে। এটি বাধ্যতামূলক করেছে সরকার।’

তিনি আরও জানান, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে যেসব দেশের যাত্রীদের সৌদি আরবে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল, সেসব দেশের ওমরাহ পালনে ইচ্ছুক মুসল্লিদেরও সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে।

সৌদি আরবে গমনেচ্ছুকদের জন্য কিছু শর্ত

এছাড়াও বাইরের দেশ থেকে ওমরাহ পালনে সৌদি আরবে গমনেচ্ছুকদের জন্য কিছু শর্ত আরোপ করেছে দেশটি। কেবল ৯টি দেশ ছাড়া বিশ্বের সকল দেশ থেকেই সরাসরি ফ্লাইটে সৌদি আরবে প্রবেশ করা যাবে। শর্তগুলো হচ্ছে—

এক. এই ৯টি দেশ হচ্ছে- ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, মিসর, তুরস্ক, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা ও লেবানন। এই দেশগুলো থেকে কোনো ওমরাহ পালনপ্রত্যাশী সৌদি আরবে প্রবেশ করতে চাইলে, তৃতীয় কোনো দেশে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

দুই. ১৮ বছর বা এর ঊর্ধ্ব বয়সীরাই কেবল ওমরাহ পালনের অনুমতি পাবেন। এছাড়া সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় থেকে স্বীকৃত ওমরাহ এজেন্সির মাধ্যমেই কেবল সৌদি আরবে আসতে পারবেন মুসল্লিরা।

তিন. ওমরাহ পালনের সময় মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সব ধরনের বিধিনিষেধ এবং নিয়ম-কানুন কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে।

আরও পড়ুন : যেসব সময় হজ বন্ধ ছিল

উল্লেখ্য, বাইরের দেশগুলোর নাগরিকদের সৌদি আরবে পৌঁছানোর পর সরকার অনুমোদিত কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রগুলোতে নির্দিষ্ট সময় ঘরবন্দি থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তা।

যে কারণে হজ-ওমরাহ পালনে নতুন নিয়ম

প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েপড়া করোনা মহামারির কারণে বিদেশিদের ওমরাহ পালনের অনুমতি দেয়নি দেশটি। এমনকি হজের সময়ও বাইরে থেকে কেউ গিয়ে হজ আদায়ের অনুমতি ছিল না। ফলে এই বছর ও বিগত বছর করোনা মহামারির কারণে সীমিত পরিসরে পবিত্র হজ আয়োজন করছে সৌদি আরব। তবে সফলভাবে হজ আয়োজন করতে পেরে সারাবিশ্বের মুসলিমদের জন্য ওমরাহ পালনের সুবিধা উন্মুক্ত করছে দেশটি।

সৌদির নাগরিক ও বাসিন্দাদের জন্য হজের পরে রোববার থেকেই ওমরাহ পালনের অনুমতি দিয়েছে দেশটির প্রশাসন। এর আগে পবিত্র হজের প্রস্তুতির জন্য জ্বিলহজ্জ মাসের প্রথম সপ্তাহে ওমরাহ পালন স্থগিত করা হয়।

Link copied