নাঈমকে অপেক্ষায় রেখে অভিষেক হচ্ছে জয়ের?

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:০৮ পিএম


নাঈমকে অপেক্ষায় রেখে অভিষেক হচ্ছে জয়ের?

ছন্দ হারানো বাংলাদেশ ক্রিকেট বাইশ গজে একেবারেই টালমাটাল। একের পর এক ম্যাচ হারে কাঠগড়ায় ব্যাটসম্যানরা। আরো নির্দিষ্ট করে বললে ওপেনারদের দৈন্যদশা কাটছে না কিছুতেই। টি-টোয়েন্টি পর টেস্ট, পরিবর্তন এনেও ফায়দা হচ্ছে না। বড় হচ্ছে না উদ্বোধনী জুটি। পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে খেলানো হয়েছিল সাইফ হাসানকে। চট্টগ্রামে ব্যর্থ সাইফ টাইফয়েডে কারণে ছিটকে গেছেন দ্বিতীয় টেস্ট থেকে। ঢাকা টেস্টে সাদমান ইসলামের সঙ্গে ইনিংস শুরু করবেন কে?

৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের আগে শুক্রবার আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে টেস্ট দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক আভাস দিলেন, ঢাকা টেস্টের ওপেনিংয়ে দেখা যাবে ডানহাতি-বাঁহাতি কম্বিনেশন।

মুমিনুল বললেন, ‘দেখেন ওপেনিং কম্বিনেশন ডান-বাম হতে পারে, হয়তো বাম হাতি দুইজনও হতে পারে, আসলে ডান বাম হওয়ারই চান্স বেশি।’

ডানহাতি-বাঁহাতি কম্বিনেশন হলে হঠাৎ করে টেস্ট দলে ডাক পাওয়া নাঈম শেখের ভাগ্যের শিকে ছিড়ছে না। সেক্ষত্রে বাঁহাতি সাদমান ইসলামের সঙ্গে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা মাহমুদুল হাসান জয়কে। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে, এভাবে একের পর এক জুনিয়র ক্রিকেটারদের দিয়ে পরীক্ষা করিয়ে দলের পাশাপাশি তাদের ক্যারিয়ারকেও কী ঝুঁকির মুখে ফেলা হচ্ছে না?

মুমিনুলের ব্যাখ্যা, ‘আমার মনে হয় না। আপনারা যদি শেষ দেখেন এখানে কিন্তু জুনিয়র কাউকে আনা হয়নি এক্সপ্রিমেন্টের জন্য। আপনি দেখেন, তামিম ভাই নাই তার জায়গা একটা ওপেনার দরকার ছিল। তো জয় আসছে, তারপর নাঈম এসেছে। সাকিব ভাই ছিল না, রাব্বি খেলল প্রথম ম্যাচ। রিয়াদ ভাই তো রিটার্ড করল, তো এরকম জায়গায় নতুন কাউকে তো নিতে হবে। আমাদের তো এমন নাই অনেক বেশি খেলোয়াড়ও নাই। যারা নাই তাদের জায়গা খেলছে।’

এদিকে দীর্ঘদিন পর আবার চোট কাটিয়ে দলে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান। চট্টগ্রাম টেস্টে তার অনুপস্থিতি বেশ ভুগিয়েছিল দলকে। এবার সাকিব ফেরায় কেমন হবে পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচের কম্বিনেশন?

মুমিনুল বলেন, ‘সাকিব ভাই ঢুকলে তো একটু সহজ হয়, তা সবারই জানা। আর উনাকে দেখলাম, উনি ভালোই আছেন। অনুশীলন করেছেন, ভালোই লাগছে দেখে। আর টিম কম্বিনেশন হবে সাত ব্যাটসম্যান আর চার বোলারের। এ রকমই চিন্তা করেছি।’

টিআইএস

Link copied