প্রিমিয়ার লিগ রাউন্ডআপ

হাঁফ ছেড়ে বাঁচল এভারটন, তৃতীয় স্থান চেলসির

Dhaka Post Desk

স্পোর্টস ডেস্ক

২০ মে ২০২২, ০৮:৪৫ এএম


হাঁফ ছেড়ে বাঁচল এভারটন, তৃতীয় স্থান চেলসির

ইংলিশ লিগের ১২৩ বছরের ইতিহাসে সর্বোচ্চ সংখ্যক মৌসুম (১১৯) প্রথম বিভাগে কাটানো দল এভারটন। ১৯৯২ সালে প্রিমিয়ার লিগ শুরু হওয়ার পর থেকে যে ছয়টি ক্লাব এখন পর্যন্ত প্রতিটি মৌসুম খেলেছে, তার একটি এভারটন। অথচ এই দলটিই কিনা এবার মৌসুমের প্রায় অনেকটা সময় অবনমন অঞ্চলে ঘুরপাক খেল। তবে দলটির সমর্থকরা শেষ পর্যন্ত স্বস্তির নিঃশ্বাস নিতে পারেন, কারণ এক ম্যাচ হাতে রেখে অবনমন থেকে বেঁচে গিয়েছে মার্সিসাইড দলটি। ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে ৩-২ গোলের নাটকীয় জয়ে প্রিমিয়ার লিগে টিকে গেল ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের এভারটন।

ঘরের মাঠে ক্রিস্টাল প্যালেসকে হারিয়ে দিলেই প্রিমিয়ার লিগে থেকে যাওয়া নিশ্চিত, এমন সমীকরণের ম্যাচে এভারটনের শুরুটা দুঃস্বপ্নের চেয়ে কোনো অংশে কম ছিল না। প্রথমার্ধের ২১ মিনিটে ক্রিস্টাল প্যালেসের জ্যঁ-ফিলিপ মাতেতা ও ৩৬ মিনিটে জর্ডান আইয়ুর লক্ষ্যভেদে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়ে ল্যাম্পার্ডের দল। গুডিসন পার্কে এভারটন সমর্থকদের ত্রাহি অবস্থা।

তবে দারুণ প্রত্যাবর্তনের গল্প লেখে এভারটন। ৫৪ মিনিটে মাইকেল কিন, ৭৫ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রিচার্লিসনের গোলে সমতায় ফেরে তারা। আর ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজতে যখন আর মোটে মিনিট পাঁচেক বাকি, তখন প্যালেস বক্সের বাইরে ফ্রি-কিক পায় এভারটন। সেখান থেকে ডেমারাই গ্রে’র অসাধারণ শটে মাথা ছুঁইয়ে প্যালেস গোলরক্ষক জ্যাক বাটল্যান্ডকে পরাস্ত করেন এভারটনের ইংলিশ স্ট্রাইকার ডমিনিক ক্যালভার্ট-লেউইন। আর তাতেই অবনমন শঙ্কা দূরে ঠেলে এভারটন, উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ে গুডিসন। ৩৭ ম্যাচ থেকে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে এখন টেবিলের ১৬ নম্বরে অবস্থানে করছে দলটি।

এদিকে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে লেস্টার সিটির সঙ্গে ড্র করে প্রিমিয়ার লিগে তৃতীয় স্থান নিশ্চিত করেছে চেলসি। গত দুই মাসে মালিকানা সংকটসহ আরও নানাবিধ সমস্যার প্রভাবে মাঠের খেলায়ও ছন্দ হারায় দলটি। তাই মৌসুমের শুরুর দিকে দারুণ পারফর্ম করলেও শেষদিকে সেরা চারে থাকাটাও কিছুটা শঙ্কার মুখে পড়েছিল।

তবে আগের ম্যাচে লিডসকে ৩-০ গোলে হারিয়ে আগামী মৌসুমে চাম্পিয়ন্স লিগ খেলা নিশ্চিত করে প্রতিযোগিতার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন চেলসি। আর লেস্টারের সঙ্গে বৃহস্পতিবার রাতের ড্র’র ফলে তৃতীয় স্থান নিশ্চিত হয়েছে তাদের।

লেস্টারের বিপক্ষে ঘরের মাঠে মাত্র ৬ মিনিটে জেমস ম্যাডিসনের গোলে পিছিয়ে পড়েছিল চেলসি। তবে ৩৪ মিনিটে সেই গোল শোধ করেন দলটির স্প্যানিশ ফুলব্যাক মার্কোস আলোনসো। ম্যাচের বাকি সময়ে চেলসি অনেক চেষ্টা করেও লেস্টারের গোলমুখ উন্মুক্ত করতে পারেনি। তাই ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় থমাস টুখেলের শিষ্যদের।

৩৭ ম্যাচ থেকে ৭১ পয়েন্ট নিয়ে এখন টেবিলের তৃতীয় স্থানে আছে চেলসি। লিগে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলতে ২২ মে ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে দলটি। সেই ম্যাচে হেরে গেলেও তৃতীয় স্থানে থেকেই মৌসুম শেষ করবে দলটি। কারণ টেবিলের চতুর্থ স্থানে থাকা টটেনহাম গোল ব্যবধানে চেলসির চেয়ে অনেক পিছিয়ে আছে।

এইচএমএ

Link copied