জেমির সঙ্গে ক্যাবরেরার পার্থক্য, তিনি শতভাগ দিচ্ছেন: সালাউদ্দিন

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

২৫ মে ২০২২, ০৮:৫০ পিএম


দেশের প্রথম ফুটবল ক্লাব হিসেবে নিজেদের ভেন্যু করেছে বসুন্ধরা কিংস। গত তিন মাসে সেখানে লিগের বেশ কয়েকটি ম্যাচ এবং মার্চ উইন্ডোতে জাতীয় দলও অনুশীলন করেছে। বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন এত দিন কিংস অ্যারেনায় যাননি। আজই প্রথম জাতীয় দলের এশিয়া কাপ বাছাইয়ের অনুশীলন দেখতে গিয়েছিলেন। 

জাতীয় দলের অনুশীলন পর্যবেক্ষণ করতে গিয়ে কিংস অ্যারেনায় মুগ্ধ হয়েছেন বাফুফে সভাপতি, ‘দারুণ একটি ফুটবল উপযোগী মাঠ ও সুন্দর ব্যবস্থাপনা করেছে বসুন্ধরা কিংস। এজন্য বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং ক্লাবের সভাপতি ও কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই।’

জাতীয় দল আগামীকাল রাতে ইন্দোনেশিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবে। নতুন কোচ হ্যাভিয়ের ক্যাবরেরার অধীনে বাংলাদেশ মাত্র দুইটি ম্যাচ খেলেছে। লিগের ব্যস্ততায় গতবার সেভাবে অনুশীলন হয়নি। এবার একটু বেশি সময় তার অধীনে অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছেন ফুটবলাররা। 

সদ্য সাবেক কোচ জেমি ডে ও বর্তমান কোচের মধ্যে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন পার্থক্য খুজলেন এভাবে, ‘বর্তমান কোচ শতভাগ দিচ্ছেন। সে প্রতিটি খেলা সশরীরে দেখছেন। সকল কাজ নিজে থেকে শতভাগ করছেন। বিগত কোচ দেশের বাইরে ছিলেন অনেক সময়। অনেক কিছুই দেশের বাইরে থেকেই করেছেন।’ জেমি ডে নিজ দেশে ইংল্যান্ডে থেকেছেন নিয়মের মধ্যেই। বাফুফে তার ছুটি মঞ্জুর করাতেই তিনি বাংলাদেশ ত্যাগ করেছেন প্রায় সময়। 

সামনে জাতীয় দলের এশিয়া কাপ বাছাই। জামালদের কাছে নিজের প্রত্যাশা সম্পর্কে বাফুফে সভাপতি বলেন, ‘আমি ফুটবলারদের ভালো কোচ, উন্নত সুযোগ সুবিধা দিয়েছি। বাকিটা তাদের খেলতে হবে।’ ফুটবলে ফুটবলার ও কোচরাই আসল সেটাও বলেছেন এই সাবেক জাতীয় অধিনায়ক। 

বাফুফে সভাপতি যখন কিংস অ্যারেনায় কথা বলছিলেন তার পাশে ছিলেন বাফুফে সহ-সভাপতি ও বসুন্ধরা কিংসের সভাপতি ইমরুল হাসান। তার দল এএফসি কাপ মিশন শেষ করেই আজ দুপুরের পর দেশে ফিরেছেন। কিংসের ফুটবলারদের জাতীয় দলে যোগ দেয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘মাত্র দল দেশে ফিরল। ক্লাবের ক্যাম্পে তাদের শারীরিক অবস্থা দেখবেন ট্রেইনার, ফিজিও। সুস্থ থাকলে জাতীয় দলে যারা ডাক পাবেন তারা অবশ্যই যোগ দেবেন।’ 

কিংস টানা দ্বিতীয় বার এএফসি কাপে ব্যর্থ হলো। এবার ব্যর্থ হওয়ার পেছনে ক্লাবের সভাপতির পর্যবেক্ষণ, ‘আসলে আমি ফুটবল বিশেষজ্ঞ নই। আপনাদের মতোই সাধারণ ফুটবলপ্রেমী। আমরা দুইটি ম্যাচ জিতেছি, একটি হেরেছি। যে ম্যাচটি হেরেছি, সেটাতে আমার মনে হয় হাই লাইন ডিফেন্স করায় ম্যাচটি অন্য রকম হয়েছে।’

এজেড/এনইউ

Link copied