ভক্তদের পরের বছরের ফাইনালের টিকিট কেটে রাখতে বললেন ক্লপ

Dhaka Post Desk

স্পোর্টস ডেস্ক

২৯ মে ২০২২, ০৯:১০ এএম


ভক্তদের পরের বছরের ফাইনালের টিকিট কেটে রাখতে বললেন ক্লপ

একটুর জন্য ধরা দেয়নি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপাটা। লিভারপুল সুযোগ সৃষ্টি করছিল বটে, কিন্তু সামনে যেন দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন থিবো কোর্তোয়া। তাই শিরোপা থেকে হাতছোঁয়া দূরত্বে থামতে হয়েছে মোহামেদ সালাহদের। তবে কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ অঙ্গীকারই করলেন, পরের বছরের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে আবারও খেলবে তার দল। এজন্য ভক্তদের আগামী বছরের ফাইনালের ভেন্যু ইস্তানবুলের  টিকিট কেটে রাখতেও বলে দিলেন তিনি।    

প্যারিসে বেশ ঝক্কি সামলেই খেলা দেখতে এসেছেন লিভারপুল ভক্তরা। এসে পড়েছেন নতুন ঝামেলার মুখে। সব ঝামেলা শেষে খেলাটা যখন হলো, তাতে আর তাদের হাসিমুখটা থাকল না। রিয়াল জিতল ১-০ গোলে। আর তাতেই এক সপ্তাহ আগে কোয়াড্রুপল জেতার দৌড়ে থাকা লিভারপুল মৌসুম শেষ করল বড় দুই শিরোপা ছাড়া।

তবে ক্লপ আশা ছাড়ছেন না। জানালেন, আগামী মৌসুমেই আবার ফাইনাল খেলবে তার দল। এর আগে ২০১৮ সালে ফাইনালে এই রিয়ালের কাছেই হারে লিভারপুল, তবে পরের বছরই জেতে শিরোপা। আগামী বছরও তেমন কিছুই করে দেখানোর ইচ্ছা ক্লপের। বললেন, ‘আগামী বছরের ফাইনালটা কোথায়? ইস্তানবুল?’ ইতিবাচক উত্তর পাওয়ার পরই ক্লপ ভক্তদের বললেন, ‘হোটেল বুক করে রাখুন।’

মুহুর্মুহু সুযোগ সৃষ্টি করেও হার, তার ড্রেসিং রুমের হতাশার মাত্রাটা কেমন তা জানতে চাওয়া হয়েছিল লিভারপুল কোচের উত্তর ছিল, ‘হ্যাঁ হতাশ তো বটেই, ড্রেসিং রুমের কারোই এখন মনে হচ্ছে না, দারুণ একটা মৌসুমে কেটেছে আমাদের।’

অথচ এক সপ্তাহ আগেও কোচ ক্লপ জানিয়েছিলেন, লিগ আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ না জিতলেও তার দলের মৌসুমটাকে অসাধারণ হিসেবেই দেখবেন তিনি। সে প্রসঙ্গে তিনি যোগ করেন, ‘ইতিবাচক হওয়াটা কঠিন নয়, আমার আগেই সেটা মনে হয়েছে। এটা ভিন্ন একটা অনুভূতি, সেভিয়ার কাছে ইউরোপার ফাইনালে হারের পরও বলেছি, কিয়েভের পরও বলেছি, ফাইনালে আসাটা খারাপ নয়।’

কোচ ক্লপ অবশ্য একে দেখছেন সাফল্য হিসেবেই। বললেন, ‘এটা ইতোমধ্যেই একটা সাফল্য, এমন সাফল্য অবশ্য আপনি চাইবেন না, তবে আমার খুব মনে হচ্ছে যে আমরা আবার আসব। আমার ছেলেরা বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ, পরের মৌসুমেও আমাদের দলটা দারুণ থাকবে। আমরা আবার শিরোপার জন্য লড়ব।’

এনইউ

Link copied