রিয়াল-আটালান্টা ম্যাচকে ধ্বংস করেছেন রেফারি

Dhaka Post Desk

স্পোর্টস ডেস্ক

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৮:৩১

রিয়াল-আটালান্টা ম্যাচকে ধ্বংস করেছেন রেফারি

রেমো ফ্রয়লারকে লাল কার্ড দেখান রেফারি/ছবি: টুইটার

রিয়াল মাদ্রিদ আটালান্টার বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলয় কষ্টার্জিত এক জয় তুলে নিয়েছিল বৃহস্পতিবার রাতে। তবে ম্যাচের ফলাফল ছাপিয়ে আলোচনায় সে রাতের রেফারিং। প্রতিপক্ষ কোচ জিয়ান পিয়েরো গ্যাসপেরিনি রীতিমতো বলেই বসেছেন, খেলাটাকে ‘ধ্বংস’ করেছেন রেফারি টোবিয়াস স্টিলার!

ঘটনার সূত্রপাত সে ম্যাচের ১৭ মিনিটে। বল পায়ে বিপদসীমার দিকে আগুয়ান ফেরলান্দ মন্ডিকে বাঁধা দেন রেমো ফ্রয়লার, যখন তার আশেপাশে আরও তিন আটালান্টা খেলোয়াড় ছিলেন রক্ষণে। এ অবস্থায় সাধারণত খেলোয়াড়কে সতর্ক করে দেয়া হয়, কিন্তু ফ্রয়লারকে সে রাতে দেখতে হয় লাল কার্ড, আটালান্টা পরিণত হয় দশ জনের দলে। এরপরও অবশ্য ইতালীয় দলটি চেষ্টা করে গেছে, তবে শেষ হাসি হেসেছে রিয়ালই।

কোচ গ্যাসপেরিনি অভিমত, সে লাল কার্ডটা না হলে ফলাফলটা অন্যরকমও হতে পারতো। সে লাল কার্ডের পরই যে রক্ষণাত্মক মেজাজে চলে গিয়েছিল শেষ দুই মৌসুমে আক্রমণাত্মক ফুটবলের জন্য পরিচিতি পাওয়া দলটি! আটালান্টা কোচের কথা, ‘আমি জানি না ফলাফলটা কী হতে পারতো। কিন্তু সে ঘটনাটা বেশি গুরুত্ব দিয়ে দেখায় খেলাটাই ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল।’

এর আগে ন্যাপোলির বিপক্ষে ম্যাচে রেফারির প্রতি ‘অশোভন’ আচরণ করে আটালান্টা কোচ এক মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সিরি’আয়। রেফারিং নিয়ে আরও মন্তব্য ডেকে আনতে পারে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিষেধাজ্ঞাও। তবে কোচ গ্যাসপেরিনি সেসবের তোয়াক্কা করলেন থোড়াই! বললেন, ‘কথা বলার কারণে আমি সিরি’আয় নিষিদ্ধ হয়েছি, এখন কিছু বললে উয়েফাও আমাকে এক মাসের জন্য নিষিদ্ধ করে বসতে পারে। কিন্তু এটা এক ধরণের ফুটবল-আত্মহত্যা। ম্যাচে এমন রেফারিকে দায়িত্ব দেয়া উচিত নয় যারা কখনো খেলাটা খেলেনি আর একটা সাধারণ চ্যালেঞ্জ আর ফাউলের পার্থক্যও বোঝে না।’

এমন রেফারিং করলে দায়িত্ব ছেড়ে অন্যত্র ভাগ্য অন্বেষণ করা উচিত রেফারিদের, পরামর্শ দিলেন আটালান্টা কোচ, ‘যদি তারা এ পার্থক্যটা না বোঝে, তাহলে সত্যি বলতে, তাদের দায়িত্ব ছেড়ে অন্য কোথাও চাকরি নেয়া উচিত। যারা ফুটবল খেলেছে, তাদেরই এ পেশায় আসা উচিত।’

সে লাল কার্ডের পরই খোলসে ঢুকে পড়েছিল আটালান্টা। কোচ গ্যাসপেরিনির আফসোস, ‘আমরা ভালোভাবেই রক্ষণকাজ করেছিলাম, আর গোলশূন্য ড্রটা অর্জনই করে ফেলেছিলাম। তবে ১১ জনের বিপক্ষে ১১ জনের লড়াই হলে ব্যাপারটা অনেক বেশি রোমাঞ্চকর হতে পারতো। আমরা হারতে পারতাম, আমি ফলাফল নিয়ে কোনো অভিযোগ জানাচ্ছি না, কিন্তু অন্তত আমরা নিজেদের খেলাটা খেলতে পারতাম।’

নিজেদের মাঠে এক গোলে হারের পর আটালান্টাকে এখন ফিরতি লড়াইয়ে জিততে হবে অন্তত দুই গোলের ব্যবধানে। তার আগে কোচ গ্যাসপেরিনি জানালেন, তার দল নিজেদের খেলাটা খেলতেই যাবে মাদ্রিদে। বললেন, ‘আমরা এর পরও সন্তুষ্ট আর আমরা মাদ্রিদে নিজেদের খেলাটা খেলতেই যাচ্ছি।’ 

এনইউ

Link copied